ঢাকাবুধবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

৫-১১ বছর বয়সী শিশুদের করোনা টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন

ঢাকা
আগস্ট ১১, ২০২২ ১০:৫০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকা: পরীক্ষামূলকভাবে দেশের ৫-১১ বছর বয়সী শিশুদের করোনা ভাইরাসের টিকা দেয়া শুরু হয়েছে। বৃহষ্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। এ সময়ে শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জাহিদ মালেক বলেন, ‘শিশুদের এই টিকা বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। এটি খুবই নিরাপদ। যুক্তরাষ্ট্রে এ টিকা দেয়া হচ্ছে। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর অনুমোদন দিয়েছে। যেসব টিকা এসেছে, সেগুলো দুই মাসের ব্যবধানে দিতে হবে। আগাম ি২৫ আগস্ট থেকে পুরোদমে টিকাদান শুরু হবে। এরই মধ্যেই প্রায় ৩০ লাখ ডোজ দেশে এসে পৌঁছেছে। অচিরেই অবশিষ্ট ডোজ দেশে এসে পৌঁছাবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘চলমান করোনা মহামারী পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাংলাদেশের জনগণকে করোনা টিকা প্রদানের লক্ষ্যে সারা দেশে ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম পরিচালনা চলমান রয়েছে। ভ্যাকসিনের বৈশ্বিক অপ্রতুলতা সত্ত্বেও সরকার বিশ্বের বহু দেশের আগে আমাদেও দেশের আপামর জনসাধারণকে করোনার টিকা প্রদানের আওতায় আনা হয়েছে।’

স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশে কেন্দ্রীয় পর্যায়ে মোট এক কোটি ৩১ লাখ ৪৭ হাজার ৮৩৯ ডোজ ভ্যাকসিন মজুদ রয়েছে। গত ৭ আগস্ট পর্যন্ত দেশে মোট সংগৃহীত করোনা টিকার সংখ্যা ৩১ কোটি নয় লাখ ৩৮ হাজার ৮০০। মোট প্রদানকৃত প্রথম ডোজ ১২ হাজার ৯৭ লাখ ৬০ হাজার ৩৬২ (৭৬ দশমিক ১৯ শতাংশ)। মোট প্রদানকৃত দ্বিতীয় ডোজ ১২ কোটি সাত লাখ ৩ হাজার ১২০ (৭০ দশমিক ৮৭ শতাংশ)। মোট প্রদানকৃত বুস্টার (তৃতীয়) ডোজ চার কোটি ৬ লাখ ৫৯ হাজার ৯৭৮ (২৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ)।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাক্তার এবিএম খুরশীদ আলমের সভাপতিত্বে সভায় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মুহ. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব সাইফুল ইসলাম বাদল, বাংলাদেশ নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস, বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত অখিম ট্রস্টার, ইউনিসেফের প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বিদেশী কুটনৈতিকরা কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করেন।

Facebook Comments Box