রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন

১৫ বছর পূর্তিতে খুলশী মার্টের দশ দিনব্যাপী ‘টুগেদার ফর হিউমিনিটি’ কার্যক্রম শুরু

পরম বাংলাদেশ
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৯৬ Time View

চট্টগ্রাম: ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ব্যতিক্রমী মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে চট্টগ্রামের প্রথম সুপার শপ ‘খুলশী মার্ট’। ‘টুগেদার ফর হিউমিনিটি’ শিরোনামে গৃহীত এই মানবিক উদ্যেগের আওতায় ১১-২০ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত খুলশী মার্ট থেকে শপিং করলেই পাঁচ শতাংশ ডিসকাউন্টের সমপরিমাণ নগদ অর্থ পাবে তিনটি মানবিক সংগঠন। এই সংগঠনগুলো হলো বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন, আল মানাহিল এবং জাগো ফাউন্ডেশন।

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) বিকালে খুলশী মার্টে ১৫ তম বর্ষপূর্তি ও মানবিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সুপার শপটির চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আলী। উপস্থিত ছিলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক গুলশানা আলী।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের ইসি মেম্বার জামাল উদ্দিন, আল মানাহিল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন এবং জাগো ফাউন্ডেশনের ন্যাশনাল বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌমেন বড়ুয়া।

মার্ট প্রমোটরস লিমিটেডের প্রতিষ্ঠান খুলশী মার্টের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ শাখের হোসাইন জানান, চট্টগ্রাম নগরীর অভিজাত খুলশী এলাকায় গত ১৫ বছর ধরে দেশি বিদেশী গ্রাহকদের নিরবিচ্ছিন্নভাবে সেবা দিয়ে আসছে খুলশী মার্ট। সব ধরনের পণ্যের সর্বোচ্চ গুণগত মান সুনিশ্চিত করে বিশ্বমানের পণ্য নিশ্চিত করে এই সুপারশপ। ১১ ফেব্রুয়ারী খুলশী মার্ট পূর্ণ করেছে অগ্রযাত্রার ১৫ বছর। এবারের বর্ষপূর্তিতে খুলশী মার্টের সব ক্রেতা সাধারণের জন্য দশ দিনব্যাপী শপিং ফেস্টের আয়োজন করা হয়েছে। এই শপিং ফেস্টে প্রতিদিন দশ জন ক্রেতা পাবেন ফ্রি শপিং করার সুবিধা।

একই সাথে ১১-২০ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত খূলশী মার্ট থেকে শপিং করলেই পাঁচ শতাংশ ডিসকাউন্টের সমপরিমাণ নগদ অর্থ দেয়া হবে তিনটি মানবিক সংগঠনকে। এছাড়া দশ দিনে সব বিক্রয়ের পাঁচ শতাংশ হারে যে নগদ অর্থ ক্রেতাদের পক্ষ থেকে মানবিক সংগঠনগুলো পাবে সেই অর্থের অতিরিক্ত আরো ৫০ শতাংশ অর্থ মানবিক সংগঠনগুলোকে নিজস্ব তহবিল থেকে প্রদান করবে খুলশী মার্ট কর্তৃপক্ষ।

খুলশী মার্টের ব্যবস্থাপক (ক্রয়) মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব মানিক ১৫ বছর পূর্তিতে দশ দিনের শপিং ফেস্টে খুলশী মার্ট থেকে শপিং করে মানবিক উদ্যোগে সহযোগী হওয়ার জন্য সব শ্রেণির ক্রেতাদের আহ্বান জানান।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের ইসি মেম্বার জামাল উদ্দিন জানান, একটি সুপার শপ কর্তৃপক্ষের মানবিক উদ্যোগ সত্যিকার অর্থেই প্রশংসনীয়। এভাবে ক্রেতা স্বার্থ সংরক্ষণ করে বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান এগিয়ে আসলে মানবিক সংগঠনগুলো আরো বেশি আর্ত মানবতার সেবায় কাজ করতে পারবে।

নিউজ রিলিজ

Share This Post

আরও পড়ুন