রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন

১০ এপ্রিল ‌‘জরিপ দিবস’ পালনের প্রস্তাব

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১২ Time View

ঢাকা: প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়াধীন বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তর কর্তৃক আয়োজিত ‘জরিপ দিবস’ বা ‘সার্বে ডে’ ঘোষণার বিষয়ে একটি সেমিনার বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টম্বর) অধিদপ্তরের তেজগাঁও ক্যাম্পাসের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়ে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল এবং কি-নোট স্পিকার ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপ উপাচার্য প্রফেসর ড. এএসএম মাকসুদ কামাল।

বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের প্রফেসর ড. মঞ্জুরুল হাসান এবং বাংলাদেশ জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক মোহাম্মদ আবদুর রউফ হাওলাদার। সভাপতিত্ব করেন সার্ভেয়ার জেনারেল অব বাংলাদেশ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. হাবিবুল হক। উপস্থিত ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ড. নূরুন্নাহার চৌধুরী এবং উপ সচিব এমজে আরিফ বেগসহ সরকারি অংশীজন ২৭টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি।

মো. হাবিবুল হক স্বাগত বক্তব্যে জরিপ ও মানচিত্র প্রণয়নের আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত ধারণা তুলে ধরেন। সেমিনারে বক্তারা জরিপ কি, এর প্রকারভেদ, জরিপ দিবসের গুরুত্ব এবং জরিপ দিবস হিসেবে ১০ এপ্রিল ঘোষণার কারণ ও ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট উপস্থাপন করেন।

বিভিন্ন প্রয়োজনে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং অনেক স্বতন্ত্র ব্যক্তি জরিপ কাজ করে থাকেন। কিন্তু পদ্ধতিগত মৌলিক বিষয়ে ভিন্নতার কারণে এসব জরিপকৃত উপাত্ত পরস্পর বিনিময়যোগ্য হয় না। যার ফলে একই কাজ প্রত্যেককে আলাদাভাবে করতে হয়। এতে করে এক দিকে যেমন আর্থিক ক্ষতি হয়, অন্য দিকে উন্নয়নমূলক কাজে সময় অনেক বেশী লাগে। স্বতন্ত্রভাবে কাজ করার কারণে সংগৃহীত উপাত্তে ভুলভ্রান্তি থাকার সম্ভাবনাও অনেক বেড়ে যায়। সবাই মিলে বছরে নির্দিষ্ট একটি দিনে জরিপ দিবস উদযাপন করলে সব উপকারভোগীসহ সাধারণ জনগণকে এসব বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করা সম্ভব হবে। সে সাথে জরিপের কাজে সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠান পরস্পর বিনিময়যোগ্য উপাত্ত প্রস্তুত করার বিষয়ে আগ্রহী হবে।

জরিপের বিভিন্ন সরকারি অংশীজন প্রতিষ্ঠান থেকে আগত প্রতিনিধিরা জরিপ দিবসের গুরুত্ব ও জরিপ দিবস হিসেবে ১০ এপ্রিল ঘোষণার বিষয়ে একমত পোষণ করেন।

ড. মো: আবু হেনা মোস্তফা কামাল জরিপ দিবস প্রস্তাবনা এবং ভবিষ্যতে উদযাপন সম্পর্কিত সবার মতামত প্রদানের জন্য ধন্যবাদ জানান। সার্বিক আলোচনা ও সবার মতামতের প্রেক্ষিতে ১০ এপ্রিল প্রাথমিকভাবে জরিপ দিবস প্রস্তাবের বিষয়ে একমত পোষণ করেন।

Share This Post

আরও পড়ুন