বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

হ্যাপী বার্থডে ইস্মার্ট শংকর

পরম বাংলাদেশ প্রতিবেদন
  • প্রকাশ : শনিবার, ১৫ মে, ২০২১
  • ১১৩ Time View

‘উস্তাদ উই মিস ইউ। ক্যান নেভার ফরগেট দ্যা ম্যাজিক অফ আওয়ার ফিল্ম ইস্মার্ট শংকর। ইট ওয়াজ ‍সো মাচ ফান.. হ্যাপী বার্থদে অ্যান্ড লেটস সিলেব্রেট এগেইট ‍সুপার ‍সুন রাম পথিনেনি।’ জন্মদিনে ফেসুবকে রাম পথিনেনিকে এভাবেই শুভেচ্ছা জানালেন নায়িকা চার্মি কৌর।

দক্ষিণ ভারতের তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় নায়ক রাম পথিনেনির ৩৩তম জন্মদিন আজ। ১৯৮৮ সালের ১৫ মে তিনি ভারতের হায়দ্রাবাদে জন্মগ্রহণ করেন।

সীতারাম চৌধুরী পথিনেনির পিতার নাম মুরালিমোহন পথিনেনি এবং চাচা জনপ্রিয় চলচ্চিত্র প্রযোজক রবি কিশোর পথিনেনি যিনি শ্রাবন্তী রবি কিশোর নামে পরিচিত। রাম তামিলনাড়ুর চেন্নাইয়ে অবস্থিত ছেত্তিনাদ বিদ্যাশ্রমে পড়াশোনা করেন।

২০০২ সালে রাম আদায়ালাম নামক একটি তামিল স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করে ইউরোপীয় চলচ্চিত্র উৎসবের সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতে নেন। নিউ জার্সি আর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পরিচালক এবং প্রযোজক পুরষ্কৃত হন। ২০০৬ সালে রাম দেবদাসু চলচ্চিত্রে নবাগত অভিনেতা হিসেবে অভিনয় করেন। দেবদাসু ব্লকবাস্টার হিট হয়, ১৭টি হলে ১৭৫ দিন ধরে চলে এবং হায়দ্রাবাদের ওডিয়ন ৭০০এমএম থিয়েটারে ২০৫ দিন ধরে চলে। সুকুমার পরিচালিত জগাদম তার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র। এটা বক্স অফিসে সাড়া জাগাতে সমর্থ না হলেও সমালোচকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। তার পরের ছবি শ্রীনু ভাটিলা পরিচালিত এবং জেনেলিয়া ডি’সুজা অভিনীত রেডি সফল হয় এবং তাকে বড় নায়কদের কাতারে সামিল করে।

রাম ২০০৯ সালে মাস্কা এবং গণেশ জাস্ট গণেশ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। দ্বিতীয়টি বক্স অফিসে সফল না হলেও মাস্কা সফল হয়। প্রথম দিনে আড়াই কোটি আয় করে এবং প্রথম সপ্তাহে লগ্নি অর্থ তুলে আনতে সক্ষম হয়। তিনি ২০১০ সালে শ্রীনিবাস পরিচালিত রাম রাম কৃষ্ণ কৃষ্ণ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে। ২০১১ সালের কান্ডিরেগা ব্লকবাস্টার হিট হয়। পরের ছবি এন্ডুকান্তে প্রেমান্তাতে তামান্নার সঙ্গে জুটি গড়ে রাম।

রামের শেষ মুভি ‘রেড’ কিছুদিন আগে রিলিজ হয়েছে। ২০২০ সালে মুক্তি প্রাপ্ত রাম অভিনীত ইস্মার্ট শংকর মুভিটি ১০০ কোটির উপরের আয় করে।

উইকিপিডিয়া অবলম্বনে

Share This Post

আরও পড়ুন