রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

হেরিটেজ ঘোষিত সিআরবি ধ্বংস করে হাসপাতাল নির্মাণ কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৭ Time View

চট্টগ্রাম: ঐতিহ্য ও পরিবেশ ধ্বংস করে জনমতের বিরুদ্ধে গিয়ে কোন উন্নয়নই কাম্য নয়। সিআরবি রক্ষায় ধারাবাহিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। ছায়া সংসদের আদলে এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্কের বিষয় ছিল ‘সংসদ মনে করে, পরিবেশ ও ঐতিহ্য রক্ষার স্বার্থে যে কোন ধরনের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে নিরুৎসাহিত করা উচিত।’

বিতর্কে অংশ নেয় দৃষ্টি চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক সাবের শাহ, যুগ্ম সম্পাদক সাইফুদ্দীন মুন্না, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী আরফাত, উপ-বিতর্ক সম্পাদক সুমাইয়া ইসলাম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির (সিইউডিএস) প্রাক্তন সভাপতি হিমাদ্রী শেখর নাথ ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অব ডিবেট সহ সভাপতি সাদাফ নাফ।

বিতর্কে স্পীকারের দায়িত্ব পালন করেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুল।

ছায়া সংসদের প্রধানমন্ত্রী হিমাদ্রী নাথ বলেন, ‘উন্নয়ন অবশ্যই প্রয়োজন। কিন্তু সিআরবিসহ দেশের যে কোন পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাকারী জায়গায় কোন স্থাপনা করার সময়, উন্নয়নের আগে পরিবেশ ও ঐতিহ্যকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিতে হবে।’

বিরোধীদলীয় নেতা কাজী আরফাত বলেন, ‘বাংলাদেশে এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উন্নীত হচ্ছে। সার্বিক উন্নয়ন ছাড়া দেশকে গতিশীল রাখা সম্ভব না। তাই, উন্নয়ন কর্মকান্ডও পরিচালনা করতে হবে, একইসাথে পরিবেশ ও ঐতিহ্যকেও রক্ষা করতে হবে। এ জন্য দরকার জাপান, ইতালি বা মালদ্বীপের মত উন্নত ইকো-ফ্রেন্ডলি ও টেকসই উন্নয়ন মহাপরিকল্পনা।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাগরিক সমাজ চট্টগ্রামের সদস্য সচিব ও নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুস, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মফিজুর রহমান, ১৪ দলীয় জোট নেতা জসিমউদদীন বাবুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. ইদ্রিস আলী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক কবি হোসা্ইন কবির, জাসদ নেতা বেলায়েত হোসেন, আবৃত্তিকার রাশেদ হাসান, শিল্পকলা একাডেমির যুগ্ন সম্পাদক মঈন উদ্দিন কোহেল, একে জাহেদ চৌধুরী, প্রণব চৌধুরী, মোরশেদ আলম, মুশতাক আহমেদ, অ্যাডভোকেট রাশেদ চৌধুরী, শিবু প্রশাদ চৌধুরী, লেখক দিলরুবা খানম, বশির উল্লাহ লিটন, হুমায়ুন কবির মাসুদ, আরফাতুল মান্নান ঝিনুক, মাহামুদ করিম, আনোয়ার হোসেন পলাশ, রতন ঘোষ, কামরুল হুদা পাভেল, মো. শাকিব, আনোয়ার হোসেন পলাশ, মায়নুর উদ্দিন মামুন, সাজ্জাদ হোসেন জাফর, সৌরভ দাশ শুভ্র, এমইউ সোহেল, তানভীর হোসেন মাসুদ, আনিস, শাহাদাৎ হোসেন, জায়দিদ মাহমুদ, মোহাম্মদ সাকিব, মুস্তাফিজ মাহিন প্রমুখ।

Share This Post

আরও পড়ুন