শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা তহবিলে এক কোটি টাকা অনুদান দিল চট্টগ্রাম চেম্বার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেনের ছুটি বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম’র আইটি বিশেষজ্ঞ গ্রেফতার চট্টগ্রামে সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে দুই মাসব্যাপী আন্তঃবিভাগ বির্তক প্রতিযোগিতা শুরু নাভানাসহ সীতাকুণ্ডের সব কারখানায় ঈদুল আজহার আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস দাবি পরিবেশ বিষয়ক গল্প : মন পড়ে রয় । নাজিম হোসেন শেখ পিএইচপি অটো মোবাইলসের তৈরি অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল সোতোকান কারাতে স্কুল চট্টগ্রামের কারাতে বেল্ট প্রতিযোগিতা সম্পন্ন চট্টগ্রামের পাহাড় অপরাজনীতি, অপেশাদার আমলাগিরির শিকার হাটহাজারী নাজিরহাট কলেজে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন

হাটহাজারীতে নাবালিকা শিশুকে ব্ল্যাকমেইল করে যৌন নিপীড়নকারী শিক্ষক গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৬৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন কুয়াইশ এলাকা থেকে অশ্লীল ছবিসহ ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইলের দায়ে যৌন নিপীড়নকারী এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রাম।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) রাত সোয়া দশটার দিকে আয়াতুল ইসলামকে (৩৫) গ্রেফতার করা হয়। সে রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ি থানার মুসলিম ব্লকের ফয়জুল হকে পুত্র।

র‌্যাব-৭ জানায়, ২০১৮ সালে চট্টগ্রাম শহরের নিউরন ইংলিশ স্কুলের সাবেক এক শিক্ষক আয়াতুল ইসলাম ১২ বছর বয়সী ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর বাথরুমের কিছু অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে মেয়েটিকে দেখায়। ভিডিওটি তার বন্ধু-বান্ধবীকে পাঠিয়ে দেয়া এবং ইন্টারনেটে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে প্রায় তিন বছর ধরে মেয়েটিকে ব্ল্যাকমেইল করে তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। এক পর্যায়ে মেয়েটিকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ইমু, মেসেঞ্জার এবং হোয়াটসআ্যাপে তার অশ্লীল ছবি পাঠাতে বাধ্য করে আয়াতুল ইসলাম।

দীর্ঘ প্রায় তিন বছর ধরে শিক্ষক আয়াতুল ইসলামের এমন ব্ল্যাকমেইলের স্বীকার হয়ে শিশু মেয়েটি মানসিকভাবে চরম বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। গোপনে এ ঘটনা জানতে পেরে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় যৌন নীপিড়নকারী শিক্ষক আয়াতুল ইসলামকে গ্রেফতার করে র‌্যাব ৭।

জিজ্ঞাসাবাদে আয়াতুল ইসলাম নাবালিকা শিশুটিকে ব্ল্যাকমেইল করে যৌন হয়রানি ও নিপীড়ন করার কথা অকপটে স্বীকার করেছে। যৌন নিপীড়নকারী শিক্ষকের মোবাইল ফোন থেকে মেয়েটির শতাধিক অশ্লীল ছবি উদ্ধার করা হয়। তাছাড়া আয়াতুল ইসলামের ফেসবুক ও মেসেঞ্জারে শিশু ছাত্রীটির কুরুচিপূর্ণ অনেক অশ্লীল ছবি পাওয়া যায়। আয়াতুল ইসলামের মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত যৌন নিপিড়নকারী এ শিক্ষকের বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

যৌন নিপীড়নকারী আলোচিত শিক্ষক আয়াতুল ইসলাম র‌্যাব-৭ কর্তৃক গ্রেফতার হওয়ার সংবাদে এলাকাবাসী উল্লাস প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন মো. আনোয়ার হোসেন ভূঞা, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার, র‌্যাব-৭।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ