ঢাকাশুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

স্মার্টফোনে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য এখন থাকবে আরো সুরক্ষিত!

ঢাকা
ডিসেম্বর ১১, ২০২২ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকা: পৃথিবী প্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে। আর এ বদলে যাওয়া পৃথিবীতে নিত্য নতুন উদ্ভাবনী প্রযুক্তি দিয়ে প্রযুক্তি বিশ্বকে চমকে দিচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। উল্লেখযোগ্য বিষয় হচ্ছে, এ উদ্ভাবনগুলো স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জীবনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলছে। স্মার্টফোন দিয়ে ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় কাজকে আরো স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক ও গতিশীল করতে স্যামসাং চালু করেছে দুর্দান্ত ফিচার ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ইউজার ইন্টারফেস (ইউআই) স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫। ওয়ান ইউআই৫ ফিচারের তিনটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম গুরুত্বর্পূণ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, মেইনটেন্যান্স মোড।

প্রতিদিনের পথচলায় আমরা প্রায়ই বন্ধু-বান্ধব ও প্রিয়জনদের সাথে বিভিন্ন প্রয়োজনে নিজেদের ফোন ও ল্যাপটপসহ অন্যান্য ইলেকট্রনিক অনুষঙ্গ আদান-প্রদান করে থাকি। তবে, এ ক্ষেত্রে বর্তমান সময়ে সাইবার নিরাপত্তার বিষয়টি আমাদের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কোন কারণে আপনি যদি আপনার স্মার্টফোনটি অন্য কাউকে ব্যবহারের জন্য দিয়ে থাকেন, তবে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য, ছবি, মেসেজ, ক্রেডিট কার্ডসহ বিভিন্ন পেমেন্ট ইনফরমেশন ও পাসওয়ার্ড ইত্যাদির নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়টি হুমকির মুখে পড়তে পারে। কিন্তু যাদের ফোনে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ ইউজার ইন্টারফেস (ইউআই) রয়েছে, তারা খুব সহজেই তথ্য, ছবি বা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বেহাত হওয়া থেকে নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।

একটি উদাহরণ দিয়ে বিষয়টি ব্যাখ্যা করা যাক, আপনি নতুন একটি ফোন কিনেছেন। ফোনটি আপনার খুব প্রিয় একজন বন্ধুর বেশ পছন্দ হয়েছে। তিনি ডিভাইসটি কয়েক দিনের জন্য ব্যবহার করতে চান। কিন্তু, ডিভাইসটিতে আপনার অনেক জরুরি তথ্য ও ছবি রয়েছে। আপনি মেইনটেন্যান্স মোড অন করে অনায়াসেই আপনার প্রিয় বন্ধুকে ফোনটি ব্যবহারের জন্য দিতে পারেন। এতে করে আপনার বন্ধুকে আপনি যে তথ্য ও ছবিগুলো দেখার সুযোগ করে দিতে চান না তা অনায়াসেই করতে পারবেন। এটি আপনি করতে পারবেন দুর্দান্ত ফিচার ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ইউজার ইন্টারফেস (ইউআই) স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এর মাধ্যমে।

অন্য দিকে, বিভিন্ন কারণে আমাদের স্মার্টফোন মেরামতের প্রয়োজন পড়ে। বিশেষ করে, ডিসপ্লে কিংবা চার্জিং পোর্ট সহ বিভিন্ন সরঞ্জাম মেরামতের প্রয়োজন হলে আমরা ডিভাইসটিকে রিপেয়ারিং সেন্টারে ( ফোন মেরামতের দোকান) নিয়ে যাই। ফোন মেরামতের জন্য রিপেয়ারিং সেন্টারে দিলেও আমাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়টি হুমকির মুখে পড়ে। ডিভাইসে আমাদের জরুরি ডকুমেন্টসসহ অনেক ছবি থাকে। কিন্তু ফোনে স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ থাকলে তা নষ্ট হয়ে গেলেও রিপেয়ারিং সেন্টারে এখন অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে তথ্য বেহাত হওয়া নিয়ে আপনাকে আর সমস্যায় পড়তে হবে না। স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এর মেইনটেন্যান্স মোড আপনার জরুরি অনুষঙ্গগুলোকে সব সময় রাখবে সুরক্ষিত।

ব্যবহারকারীদের ডাটা সুরক্ষিত রাখতে স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এর মেইনটেন্যান্স মোড অন করার জন্য সহজেই ফোনের ‘সেটিংস’ থেকে ‘ব্যাটারি অ্যান্ড ডিভাইস কেয়ার’ মেন্যুতে প্রবেশ করতে হবে। অন করার পর আপনার ফোন রিস্টার্ট নেবে ও আপনার যাবতীয় ডেটাকে সুরক্ষিত রাখতে কন্টাক্টস, মেসেজ ও গ্যালারিকে ’হাইড’ করে ফেলবে; ফলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো বেহাত হওয়ার আর কোন সম্ভাবনা থাকবে না।

এছাড়াও, স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এর মাধ্যমে মাল্টিটাস্কিংও হতে পারে আরো স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক। এর সাহায্যে খুব সহজেই যে কোন ইমেজ থেকে টেক্সট কপি করা যাবে, যা পরবর্তী এডিট করা যাবে। স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ আছে এমন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা এখন ফোনেই তৈরি করতে পারবেন নিজেদের পছন্দসই স্টিকার। স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এ উইজেট অপশন থেকে স্মার্ট সাজেশন উইজেট সিলেক্ট করে হোম স্ক্রিনে সেট করা যাবে। এতে করে ব্যবহারকারী যে সব অ্যাপ বেশি ব্যবহার করেন, তা এক উইজেটে দেখাবে। ফলে, ব্যবহারকারীর অ্যাপ ব্যবহারের অভিজ্ঞতা হবে স্বাচ্ছ্যন্দময়। স্যামসাং ওয়ান ইউআই৫ এ ব্যবহারকারী চাইলে র‍্যাম প্লাস বন্ধ করে রাখতে পারবেন।

ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিয়ে স্যামসাংয়ের নতুন ওয়ান ইউআই৫ ফিচার চালু করেছে; যা ব্যবহারকারীদের ফোন ব্যবহারে নতুন মাত্রা যোগ করবে। মেইনটেন্যান্স মোডসহ ওয়ান ইউআই৫ এর ফিচারগুলো এ ইউজার ইন্টারফেসটিকে অন্যান্য ইউআই থেকে পৃথক করেছে। বৈশ্বিকভাবে এ ফিচারটি ইতিমধ্যেই চালু হয়ে গিয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে নির্দিষ্ট কিছু মডেলের স্যামসাং স্মার্টফোনে ওয়ান ইউআই৫ এর সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। আসছে বছরগুলোতে আরো বেশি সংখ্যক মডেলের গ্যালাক্সি ডিভাইসে ওয়ান ইউআই৫ সুবিধা চালু করা হবে বলে জানিয়েছে সামস্যাং।

Facebook Comments Box