মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন

সুরক্ষা ও স্বাচ্ছন্দ্যে দারাজের অনলাইন কোরবানির হাট

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : সোমবার, ২৬ জুলাই, ২০২১
  • ৪১ Time View

ঢাকা: বর্তমান বিশ্ব প্রতিদিনই নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। পরিবর্তীত হচ্ছে ক্রেতাদের চাহিদা, বিবর্তন ঘটছে প্রযুক্তির এবং সামগ্রিকভাবে এসব কিছুর প্রভাব পড়ছে মানুষের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে। এ পরিবর্তনকে আরো ত্বরাণ্বিত করেছে করোনা ভাইরাস বৈশ্বিক মহামারি। এখন মানুষের সবকিছুতেই প্রযুক্তি নির্ভরতা বেড়ে গেছে। করোনার কারণে সৃষ্ট বাস্তবতায় শিক্ষা, অফিসের কাজ, কেনাকাটা, জরুরি সভা সবকিছুই অনুষ্ঠিত হচ্ছে ডিজিটাল মাধ্যমে। এসব নানা কারণে স্বাভাবিকভাবেই মানুষের জীবনযাত্রায় অনেক পরিবর্তন এসেছে। অতিমারির ফলে উদ্ভূত বৈশ্বিক বাস্তবতায় মানুষের সেবাদানে তাই প্রয়োজন এখন টেকসই ডিজিটাল ইকোসিস্টেমের।

দেশের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ বাংলাদেশ দেশের ইকোসিস্টেমের বিকাশে তাদের যাত্রার শুরু থেকেই কাজ করে যাচ্ছে। নিজেদের প্ল্যাটফর্মে ধারাবাহিকভাবে নতুন নানা সেবা যুক্ত করার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি ডিজিটাল সেবাকে দেশজুড়ে কোটি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে নিরলস কাজ করছে। বর্তমানের কোভিড বাস্তবতায় ইতোমধ্যে জনমনে শঙ্কা ও ভীতির তৈরি হয়েছে। অপ্রয়োজনে বাইরে যাওয়ার ক্ষেত্রে রয়েছে নানা বিধি-নিষেধ। এরই মধ্যে চলে এসেছে কোরবানির ঈদ। এ অবস্থায় হাটে গিয়ে কোরবানি পশু কেনার ক্ষেত্রেও ক্রেতাদের মনে নানা দ্বিধার তৈরি হয়েছে। আর এ ক্ষেত্রে, ক্রেতাদের সুবিধার্থে দারাজ বাংলাদেশ আয়োজন করেছে অনলাইন কোরবানির হাট। এ সময়ে দারাজের এ আয়োজন নিঃসন্দেহে অনেক ক্রেতার জন্যই স্বস্তির কারণ হবে।

যে সব ক্রেতা এ মুহূর্তে গরুর হাটে যাওয়াকে সুরক্ষিত মনে করছেন না, কোরবানির পশু কিনতে স্বাচ্ছন্দ্য বৃদ্ধিতেই এ উদ্যোগ নিয়েছে দারাজ। দারাজের অনলাইন কোরবানির হাটে মোট এক হাজারটি পশু রয়েছে; যার মধ্যে ৭০০ গরু এবং ৩০০ ছাগল। পশুর মূল্যসীমা রাখা হয়েছে সব ক্রেতার প্রয়োজন ও পছন্দ বিবেচনায়। ক্রেতারা ডিজিটাল এ হাট থেকে সর্বনিম্ন ৫৫ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ আট লাখ টাকার মধ্যে তাদের পছন্দের কোরবানির পশু কিনতে পারবেন। দারাজের এ অনলাইন হাটটি চলবে আগামী ১৬ জুলাই পর্যন্ত।

দারাজ শুধুমাত্র গরুর হাটই আয়োজন করেনি। ক্রেতাদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধিতে প্রতিষ্ঠানটি ছাড়ের সুযোগও নিয়ে এসেছে। ক্রেতারা দারাজের কোরবানির হাট থেকে কোরবানির গরু কেনার ক্ষেত্রে সাড়ে ছয় হাজার টাকা পর্যন্ত এবং ছাগল কেনার ক্ষেত্রে আড়াই হাজার টাকা পর্যন্ত পর্যন্ত ছাড় সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। সাথে পাবেন ফ্রি ডেলিভারি ও হাসিল সুবিধা। সঠিক স্বাস্থ্যবিধি ও স্যানিটাইজেশন নিশ্চিত করতে ক্রেতারা প্রতিটি ক্রয়ের সাথে শাইনেক্স ফ্লোর ক্লিনার পাবেন বিনামূল্যে। এছাড়াও, ক্রেতাদের জন্য থাকছে প্রি-পেমেন্ট অপশনের মত অসাধারণ সব সুবিধা। আগ্রহী ক্রেতারা দারাজের অনলাইন কোরবানির হাট থেকে পছন্দ অনুযায়ী কোরবানির পশু কিনতে পারবেন স্বাচ্ছন্দ্যে কোন ঝামেলা ছাড়াই।

দারাজের লক্ষ্য বাংলাদেশের মানুষের ডিজিটাল জীবনযাত্রায় পছন্দের সঙ্গী হিসেবে পাশে থাকা। তাই, প্রতিষ্ঠানটি দেশজুড়ে ক্রেতাদের সর্বোচ্চ মানসম্পন্ন সেবাদানে ধারাবাহিকভাবে নিজেদের প্ল্যাটফর্মে নানা উদ্ভাবন নিয়ে আসছে, যুক্ত করছে নতুন সব সেবা। দেশের টেকসই ডিজিটাল ইকোসিস্টেম তৈরিতেও প্রতিষ্ঠানটির রয়েছে বহুমুখী অবদান। বাংলাদেশে ২০১৭ সালে প্রথম ডিজিটাল হাট নিয়ে কাজ শুরু করে দারাজ। তাই, কোরবানির পশু কিনতে ক্রেতারা নিঃসন্দেহে আস্থা রাখতে পারেন দারাজের ওপর।

Share This Post

আরও পড়ুন