শিরোনাম
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

সাজেক-থানচি: বঙ্গবন্ধু ট্যুর-ডি-সিএইচটি এমটিবি বাইক রেস ২৮ ডিসেম্বর

পিআইডি / ৭১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০

চট্টগ্রাম (২৪ ডিসেম্বর): পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু ট্যুর-ডি-সিএইচটি এমটিবি চ্যালেঞ্জ বাইক রেস ২০২০। তিন পার্বত্য জেলা হতে ৪৫ জন এবং দেশের অন্য জেলাসমূহ হতে ৫৫ জন সাইক্লিস্টের অংশগ্রহনে তিন দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতা শুরু হবে আগামী ২৮ ডিসেম্বর রাঙ্গামাটি জেলার পর্যটন এলাকা সাজেক হতে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় এবং বাংলাদেশ এ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশন, পার্বত্য জেলা পরিষদ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিজিবি, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থার সহযোগিতায় এ বাইক রেস অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ২৮ ডিসেম্বর সকাল আটটায় প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করবেন।

জাতির পিতার জন্ম শত বার্ষিকী উদযাপনে পাহাড়ে নতুন মাত্রা সংযোজন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে অ্যাডভেঞ্চার ক্রীড়া পর্যটনকে অগ্রসর করা, স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে মাউন্টেইন বাইকের সাথে পরিচিতকরণ, আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাসমূহে অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্টি করা, নতুন প্রজন্মের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য বিকাশে সক্ষমতা বৃদ্ধি, নিরাপদ ও টেকসই বাহন হিসেবে মাউন্টেন বাইককে পরিচিতকরণ, পরিবেশ বান্ধব ও সাশ্রয়ী বাহন হিসেবে মাউন্টেন বাইকের প্রচলন, মাদকমুক্ত সমাজ গড়া প্রভৃতি উদ্দেশ্য নিয়ে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

সাজেক থেকে শুরু হওয়া এ প্রতিযোগিতা খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান পার্বত্য জেলার থানচি গিয়ে শেষ হবে। তিন দিনে প্রতিযোগিতগণ ২০০ কিলোমিটারের অধিক পথ পাড়ি দিবেন। প্রথম দিন ২৮ ডিসেম্বর সোমবার সকাল আটটা সাজেক থেকে রাঙ্গামাটি চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়াম (১৩০ কিলোমিটার) গিয়ে যাত্রা শেষ হবে। দ্বিতীয় দিন ২৯ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকাল আটটা রাঙ্গামাটি চিং হ্লা মং চৌধুরী মারী স্টেডিয়াম থেকে বান্দরবান স্টেডিয়াম (৯০ কিলোমিটার) গিয়ে যাত্রা বিরতি হবে। তৃতীয় দিন ৩০ ডিসেম্বর বুধবার সকাল আআটটায় বান্দরবান স্টেডিয়াম থেকে থানচির সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ পর্যন্ত ৮০ কিলো মিটার পথ পাড়ির পর প্রতিযোগিতার সমাপ্তি ঘটবে।

প্রতিযোগিতায় বিজয়ীরা পাবেন সাত লাখ টাকা মূল্যের সমপরিমাণ পুরস্কার। চ্যাম্পিয়ন পাবে তিন লাখ টাকা। প্রথম রানার আপ দুই লাখ টাকা, দ্বিতীয় রানার আপ এক লাখ টাকা ও বিশেষ পুরস্কারসমূহ দেড় ৫০ লাখ টাকার। এছাড়া সফল প্রতিযোগিদের সবাইকে সনদ, মেডেল ও ক্রেস্ট প্রদান করা হবে।

রেসের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ