ঢাকাশনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সরকার নিজের ভুল বুঝতে না পারলে সন্দ্বীপবাসী তার দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিবে

মোহাম্মদ জহির উদ্দিন বাবর
ডিসেম্বর ৪, ২০২০ ৭:২৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

অতি মাত্রায় স্বার্থ চিন্তা, রাজনৈতিক কূটকৌশল এবং ক্ষমতা দেখানোর এ যুগে মানবতা দেখানো অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে। কিন্তু সেই প্রশংসা আর প্রশংসা থাকে না, যদি কাউকে উদারতা দেখাতে গিয়ে নিজেই ভিকটিম হয়ে যায়। যেটাকে আমরা বলি, ‘অতি চালাকের গলায় দড়ি।’

আমরা যেটাকে বুড্ডিস্টদের হিংসার প্রতিফলন মনে করি, সেটা আসলে পরিকল্পিত এবং বাংলাদেশকে রাজনৈতিকভাবে চাপে এবং নিয়ন্ত্রণে রাখার এক বিশাল কৌশল। রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে এতো বড় ষড়যন্ত্র এবং সামাজিক বিশৃঙ্খলা হচ্ছে অথচ আমাদের রাজনৈতিক কর্তা ব্যক্তিদের সেই ব্যাপারে কোন মাথা ব্যাথাই নেই। নেই কোনো কূটনৈতিক উদ্যেগ, নেই কোনো রাজনৈতিক চাপ তৈরির পরিকল্পনা।

এক সময় গুটি কয়েক কর্মকর্তা যারা কিছুটা বৈদেশিক সাহায্যের ভাগ-ভাটোয়ারা পাওয়ার আশায় ব্যাপারটিকে দীর্ঘায়িত করতে চেয়েছিল, তাদের জন্য হতাশার সংবাদ এই যে, বিদেশীরা আর সাহায্য দিতে চায় না। বরং তারা ঋণ দিতে ইচ্ছুক। কি মজা! ভিন্ন রাষ্ট্রের অপকর্মের ভার নিবে ঋন করে? এ ধরনের আন্তর্জাতিক ও যৌক্তিক বিষয়ে যদি সরকার সফল না হয়, তাহলে বাংলাদেশের কূটনীতি বলে কিছু অবশিষ্ট আছে?

কি আশ্চর্য! ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে কোনো চেষ্টা না করে এদেশের খেটে খাওয়া মানুষের পরিশ্রমের দুই হাজার ৩১২ কোটি টাকারও বেশি বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের জন্য। দুই হাজার ৩১২ কোটি টাকা যদি তাদেরকে ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে ব্যয় করতো, এতোদিনে তাহলে সফল হতো।

সন্দ্বীপবাসী বছরের পর বছর হাজার হাজার কোটি টাকা রেমিটেন্স এনে দেওয়ার বিনিময়ে একটি ব্রিজ বা নিরাপদ নৌ ভ্রমণের জন্য যুগ যুগ ধরে আন্দোলন করেও ব্যর্থ ১০০ কোটি টাকা বরাদ্ধ পেতে। অথচ কোনো আন্দোলন ছাড়াই সন্দ্বীপবাসীদের পুর্ব পুরুষদের জমি দখল করে রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে দুই হাজার ৩১২ কোটি টাকা? এটা কি মেনে নেওয়া যায়?

সন্ধীপবাসীর প্রতি এই বিমাতাসুলভ আচরণের হেতু কি? সন্দ্বীপবাসী এর জবাব চাই। আমরা আমাদের প্রতি রাষ্ট্রীয় কোন অন্যায় মেনে নিবো না। সরকার যদি অবিলম্বে নিজের ভুল বুঝতে না পারে, তাহলে সন্দ্বীপবাসী তার দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিবে। আমার ভূমি আমার অধিকার। রাষ্ট্র চাইলেই যা ইচ্ছা তা করতে পারে না।

লেখক: সন্দ্বীপবাসী, চট্টগ্রাম। ফেসবুক পোস্ট।

Facebook Comments Box