শিরোনাম
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৭ অপরাহ্ন

সম্ভাবনাময় এলাকায় লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প পার্ক স্থাপন করছে বিসিক

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক / ৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১
শিল্প সচিব কেএম আলী আজম

ঢাকা: আধুনিক প্রযুক্তির সাথে সমন্বয় করে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্প সচিব কেএম আলী আজম।

তিনি বলেন, ‘মেধা-মনন ও দক্ষতা দিয়ে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের উন্নয়ন করা সম্ভব। বাংলাদেশ কারিগরি সহায়তা কেন্দ্রের (বিটাক) মাধ্যমে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতে দক্ষ কর্মী ও ব্যবস্থাপক তৈরি করতে হবে। এর জন্য যুগোপযুগী শিক্ষা কারিক্যুলাম তৈরি করতে হবে।’

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং বিকাশে শিল্প মন্ত্রণালয় কর্তৃক চিহ্নিত সুপারিশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা (ভার্চুয়াল) সংক্রান্ত এক আন্ত:মন্ত্রণালয় সভায় শিল্প সচিব এসব কথা বলেন। এতে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জাফর উল্লাহ হালকা প্রকৌশল শিল্প খাত বিকাশে প্রণিত সুপারিশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি তুলে ধরেন।

সভায় বিসিকের চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান, বিটাকের মহা পরিচালক আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শিবনাথ রায়, বাংলাদেশ লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো. আব্দুর রাজ্জা, শিল্প, বাণিজ্য, পরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক, এফবিসিসিআইসহ কমিটি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প খাতে চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম বেগবান করতে শিল্প পার্ক স্থাপন, এ খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য অল্প খরচে ফান্ড সরবরাহ ও আর্থিক প্রণোদনা প্রদান, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ কর্মী ও ব্যবস্থাপক তৈরি, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য মেলা এবং হালকা প্রকৌশল শিল্প নীতি প্রণয়ন সংক্রান্ত সুপারিশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সভায় জানানো হয়, সম্ভাবনাময় এলাকা চিহ্নিত করে বিসিক ইতোমধ্যে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প পার্ক স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। পাশাপাশি সংস্থাটির বাস্তবায়নাধীন অন্য শিল্প পার্কেও হালকা প্রকৌশল শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য জায়গা বরাদ্দ দেয়া হবে। মুন্সিগঞ্জের বিসিক কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল শিল্প পার্কের নির্মাণ কাজের কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে এবং এ কাজের অগ্রগতি ৩৩ শতাংশ। এছাড়াও বিসিক হালকা প্রকৌশল শিল্পপার্ক মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ডিপিপির কার্যক্রম চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। সভায় দ্রুত লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প নীতিমালার খসড়া চূড়ান্ত করার তাগিদ দেয়া হয়।

সভাপতির বক্তব্যে আলী আজম আরো বলেন, ‘লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং এ মুহুর্তে বাংলাদেশের সবচেয়ে বহুমুখী সম্ভাবনাময় শিল্প খাত। শিল্পোন্নত বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে এ শিল্প খাতের পরিকল্পিত উন্নয়ন ঘটাতে হবে। এ লক্ষ্যে শিল্প পার্ক ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার পাশাপাশি উন্নত প্রশিক্ষণের সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে হবে।’

নিউজ রিলিজ

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ