মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন

লোকজ সংস্কৃতির বিকাশে সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
  • ২০ Time View

দেশের লোকজ সংস্কৃতির বিকাশে সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ভিন্ন ভিন্ন এলাকায় ভিন্ন ভিন্ন লোকজ সংস্কৃতি দেশের অতি মূল্যবান সম্পদ। ড. দীনেশ চন্দ্র সেনের ময়মনসিংহ গীতিকা পৃথিবীতে বাংলাদেশকে তুলে ধরেছে। পূর্ব বাংলার লোকজ সংস্কৃতি নিয়ে দীনেশ চন্দ্র সেনের অন্যান্য খন্ডগুলো পুনঃপ্রকাশ করা প্রয়োজন।’

শনিবার (৩১ জুলাই) ঢাকায় ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। ফোরামের জাতীয় কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতি, ঢাকার সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ, বৃহত্তর ময়মনসিংহ, ঢাকার সমন্বয় পরিষদের নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের সিইও ড. মো. জাফর উদ্দিন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুল মনসুর, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান সম্মেলনের উদ্বোধন অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন।

বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের তিন মেয়াদের নির্বাচিত সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশের অন্যতম মূল পরিচয় তার সমৃদ্ধ সংস্কৃতি বলে উল্লেখ করেন। সভাপতির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ‘ময়মনসিংহের নিজস্ব সংস্কৃতি, পালা গান, লোকগাঁথা খুবই সমৃদ্ধ। এগুলোকে সংকলন করতে পারলে সেটি সমৃদ্ধ লোকজ সম্পদ হতে পারে। এ ব্যাপারে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন। বিগত দিনগুলোতে ফোরামের কর্মকাণ্ড তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘বৃহত্তর ময়মনসিংহের লোজজ সংস্কৃতি বিশেষ করে মহুয়া-মলুয়া কিংবা ময়মনসিংহ গীতিকা ফোকাসে বেশি আসা দরকার।’

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বৃহত্তর ময়মনসিংহের সংস্কৃতির বিকাশে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, ‘সাংস্কৃতিক ফোরাম তাদের কর্মকাণ্ড দিয়ে সংগঠনটিকে জাতীয় সংগঠনে রূপ দিয়েছে। রাজনীতিক, সরকারি কর্মকর্তা, শিল্পী-সাহিত্যিক, ডাক্তার আইনজীবীগণ এ সংগঠনে জড়িত থেকে এ সংগঠনকে আরো সমৃদ্ধ করেছেন।’

অনুষ্ঠানে বৃহত্তর ময়মনসিংহের পদস্থ রাজনীতিবীদ, সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, আইনজীবী, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার শতাধিক প্রতিনিধি অন-লাইনে যোগ দেন।

খবর পিআইডির

Share This Post

আরও পড়ুন