ঢাকাশনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রপ্তানিমুখী শিল্পের নামে ঈশ্বরদী ইপিজেডের নাকানো ইন্টারন্যাশনালের শুল্ক ফাঁকির কারসাজি

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
জানুয়ারি ১৩, ২০২১ ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চট্টগ্রাম: ঈশ্বরদী ইপিজেডের রপ্তানিমুখী প্রতিষ্ঠান নাকানো ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লিমিটেডের নামে ‘ধোলাই কাপড়’ ঘোষণায় চীন হতে দুই কনটেইনার পণ্য আমদানি করে। এর মধ্যে একটি কনটেইনার আগমনের প্রায় দেড় মাস এবং অপর কনটেইনার ২০ দিন পার হলেও পণ্য খালাসের জন্য আমদানিক প্রতিষ্ঠানটি কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।

অপর দিকে, কনটেইনারে ঘোষণা বহির্ভূত পর্দা ও সোফার কাপড় আছে এমন গোপন তথ্য পেয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের অডিট, ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ (এআইআর) টিম এ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে কনটেইনার দুইটির বিএল ব্লক করে রাখে। পণ্য পরীক্ষার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমদানিকারকের প্রতিনিধিকে মৌখিকভাবে অনুরোধ করে এআইআর টিম ।

আমদানিকারকের প্রতিনিধি জানায়, কনটেইনার দুইটি তাঁমদের প্রতিষ্ঠান কর্তৃক আমদানিকৃত নয় এবং কেউ তাদের প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে পণ্য চালান দুইটি আমদানি করেছে।

কাস্টম কমিশনারের নির্দেশে কনটেইনার দুইটি ‘ফোর্স কিপ ডাউন’ করে কায়িক পরীক্ষার উদ্যোগ নেন এআইআর শাখার কর্মকর্তারা।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) কায়িক পরীক্ষায় ঘোষিত পণ্য শিল্পের কাঁচামাল ধোলাই কাপড়ের পরিবর্তে পাওয়া যায় প্রায় ৪০ মেট্রিক টন পর্দা ও সোফার কাপড়। এক্ষেত্রে দেড় কোটি টাকা মূল্যের এই চালানে প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ টাকা শুল্ক ফাঁকির চেষ্টা করা হয়।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস বলছে, ‘দেশীয় পোশাক শিল্পের প্রসারের লক্ষ্যে ইপিজেডের প্রতিষ্ঠানগুলো এলসি ব্যতিরেকে আইপির মাধ্যমে কাঁচামাল আমদানির সুযোগ দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এছাড়া শিল্পের কাঁচামালের ক্ষেত্রে তড়িৎ খালাসের আওতায় পণ্য চালানসমূহ ছাড় দেওয়া হয়। এই সুযোগের অপব্যবহার করে মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে অভিনব উপায়ে শুল্ক ফাঁকির অপচেষ্টা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। কাস্টমসের জিরো টলারেন্স নীতির কারণে পণ্য খালাসের উদ্যোগ নেয়নি এই চক্র। তারপরও শেষ রক্ষা হলো না তাদের। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে আইনানুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Facebook Comments Box