সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

মাত্র ২০ দিনে দেশের সবচেয়ে বড় কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল উদ্বোধন ঢাকায়

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৩৭ Time View

ঢাকা: রাজধানীর মহাখালীতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মার্কেটে দেশের সবচেয়ে বড় এক হাজার শয্যার কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার (১৮ এপ্রিল) হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন মেয়র আতিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানান, ‘গোটা বিশ্বের ন্যায় কোভিডের দ্বিতীয় ঢেই আমাদের দেশেও হানা দিয়েছে। কোভিডে আক্রান্ত ও মৃত্যুসংখ্যা দিন দিন ভীতিকর হচ্ছে। প্রতিদিনই আইসিইউ চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ রকম একটি কঠিন সময়ে প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশনায় জরুরিভিত্তিতে ডিএনসিসির এ মার্কেটটিকে একটি পুর্ণাঙ্গ কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে উদ্বোধন করা হল। এ হাসপাতালে কোভিড রোগীদের জন্য মোট বেড সংখ্যা রয়েছে এক হাজার। এর মধ্যে পুর্ণাঙ্গ আইসিইউ বেড আছে ২১২টি, এইচডিইউ বেড আছে ২৫০টি, কোভিড আইসোলেটেড রুম আছে ৪৩৮টি। এখানে ইমার্জেন্সি বেড আছে ৫০টি, যার ৩০টি পুরুষ ও ২০টি মহিলা রোগীর জন্য। এর পাশাপাশি এখানে আরটি পিসিআর ল্যাব, প্যাথলজি ল্যাব, রেডিও থেরাপি সেন্টার, এক্সরে সুবিধাসহ অন্য নানাবিধ সুবিধাদি রয়েছে।

মাত্র ২০ দিনের মধ্যে অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে অতি দ্রুততার সাথে এ হাসপাতালটি প্রস্তুত করা হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালটির ২৬০টি বেড সচল হচ্ছে। যেখানে আইসিইউ বেড রয়েছে ৬০টি, ইমার্জেন্সি ৫০টি, জেনারেল ওয়ার্ড ১৫০টি। আগামী সাত দিনের মধ্যে আরো আড়াইশ বেড সচল হবে এবং এ মাসের ২৯ তারিখের মধ্যে হাসপাতালটি পরিপূর্ণভাবে সচল হবে বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

দেশের প্রতিটি হাসপাতালে কোভিড ডেডিকেটেড বেড সংখ্য বৃদ্ধি ও সেন্ট্রাল অক্সিজেন সুবিধাদি বৃদ্ধি করার বিষয়টি তুলে ধরে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশে প্রায় ১০০টি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। আরো ৩৪টি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালুর কাজ চলমান রয়েছে। এর ফলে বর্তমানে দেশে প্রায় ১২ হাজার বেডে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা স্থাপন করা সম্ভব হয়েছে। এসব সুবিধা নিশ্চয়ই দেশের কোভিড রোগীদের জীবন রক্ষায় বড় ভূমিকা রেখে চলেছে।’

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা নর্থ সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর এবিএম খুরশিদ আলম, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এডজুটেন্ট জেনারেল মেজর জেনারেল সাকিল আহমেদ, এফসিপিএস ডিরেক্টরেট জেনারেল মেডিকেল সার্ভিসেস মেজর জেনারেল মো. মাহাবুবুর রহমান এবং ডিএনসিসি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এটিএম নাসির উদ্দিন।

খবর পিআইডির

Share This Post

আরও পড়ুন