ঢাকাশনিবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভারতে আটকা পড়া ১৬ বাংলাদেশী জেলেকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি

ঢাকা
সেপ্টেম্বর ৪, ২০২২ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকা: সাগরে হঠাৎ ঝড় ও জলোচ্ছাসের কবলে পড়ে গত আগস্ট মাসে `এফ বি সামিরা’ নামক বোটটি ডুবে যায়। এতে একজন জেলে মারা যায় ও ওই বোটের ১১ জন ও অন্য বোটের পাঁচ জনসহ মোট ১৬ জন বাংলাদেশী জেলে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জীবনতলা থানার দক্ষিণ মাউখালী, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার মোহাম্মদ জীবন মোল্লার হেফাজতে রয়েছেন।

ভারতে আটকে পড়া এসব বাংলাদেশী জেলেদের দেশে ফিরিয়ে আনাসহ চার দফা দাবিতে বাংলাদেশ উপকূলীয় মৎস্য ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচিতে সভাপতির বক্তব্যে ইউনিয়নের সভাপতি আনোয়ার হোসেন সিকদার বলেন, ‘বিভিন্ন সময় সাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে ভারতীয় সমুদ্রসীমায় প্রবেশের কারণে সে দেশের কোস্টগার্ড ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর হাতে আটকা পড়ে কারাগারে রয়েছেন প্রায় দুই শতাধিক বাংলাদেশী জেলে। উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে তাদের পরিবার দেশে মানবেতর জীবনযাপন করছে। আমার দ্রুত তাদেরকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানাই।’

তিনি আরো বলেন, ‘ট্রলার শ্রমিকরা ও বিভিন্ন বন্যা ও প্রতিকূলতার মধ্যে পড়লে ট্রলার শ্রমিকদের উদ্ধারে বাস্তব প্রদক্ষেপ নেয়ার কেউ নাই। এ জন্য সরকার নৌবাহিনী, কোষ্টগার্ড, ও নৌপুলিশকে দায়িত্ব দিয়েছে। কিন্তু গভীর সমুদ্রে যাওয়ার মত কোন শক্তিশালি নৌযান না থাকায় প্রতি বছর শত শত ফিসিং বোট ও ট্রলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফিশিং বোট ডুবে যাওয়ায় বোটের শ্রমিকরা মারা যায়। যে শ্রমিকরা প্রতি বছর শত শত কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করে ও দেশের আমিষের চাহিদা মিটাতে বিশাল ভূমিকা রাখে, সরকার তাদের জীবন বাঁচাতে তেমন কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করে নাই। ভুলবশত বাংলাদেশের সীমানা অতিক্রম করে ভারতে গেলে, ভারতীয় কোস্টগার্ড শ্রমিকদের আটক করে জেলে দেয়। তাদের ছাড়িয়ে আনতে পরিবারের সদস্যদের মাসের পর মাস ভারতে যেতে হয়, এতে লক্ষ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়। আটক বোটটি অনেক ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে যায়। কিন্তু ভারতের কোন বোট বাংলাদেশ আটক হলে ভারতে হাই কমিশনার তাদের বোট ও শ্রমিককে অল্প সময়ের মধ্যে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। কিন্তু বাংলাদেশের হাই কমিশনারের সাথে শ্রমিকরা দেখা করাই মুশকিল হয়ে পড়ে। এটা হচ্ছে আমাদের দুর্ভাগ্য।’

মানববন্ধনে বঙ্গোপসাগরে সাম্প্রতিক জ্বলোচ্ছাস থেকে উদ্ধারকৃত নাসির বয়াতী ও আব্দুল আলীমসহ অন্য জেলেরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন ইসরাঈল পন্ডিত, আবুল খায়ের, মো. শাহজাহান, মো. বাবুল মীর, আনন্দ চন্দ্র বর্মন, নান্নু মিয়া, শামসুল হক, খোকন মিয়া, আশরাফ আলী।

Facebook Comments Box