মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর আরোপিত কর প্রত্যাহার চায় সাদার্ন ইউনিভার্সিটি

পরম বাংলা ডেস্ক
  • প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৬১ Time View

চট্টগ্রাম: সাদার্ন ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের উদ্যোগে ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের ঘোষিত জাতীয় বাজেটের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক এবং জীবন-জীবিকা রক্ষায় একটি সুরক্ষিত ভবিষ্যৎ বিষয়ক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা সম্প্রতি অনলাইন প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান ও আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. ইসরাত জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার মো. মোজাম্মেল হক ও বিশেষ অতিথি ছিলেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান। আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক ও আইবিবিএলের স্বতন্ত্র পরিচালক প্রফেসর ড. সালেহ জহুর, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ ড. মো. হাবিবুর রহমান এবং এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক ড. মুনাল মাহবুব।

ঘোষিত বাজেটের এডিপি, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর কর আরোপ, শিক্ষার অন্তর্দৃষ্টি, সামাজিক সুরক্ষা নেটসহ বিনিয়োগের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাকিনা সুলতানা পমি, সহকারী অধ্যাপক রেহনুমা সুলতানা খান এবং প্রভাষক আতিকুর রহমান ইমরান।

ড. ইসরাত জাহান বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর আরোপিত কর প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বাজেটে কর্পোরেট বান্ধব কর কাঠামো নিধার্রণে সরকারের প্রতি দৃষ্টিপাত করেন। বর্তমান করোনার পরিস্থিতিতে প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিতে আরোপিত করের কারণে উচ্চ শিক্ষার বিকাশ এবং শিক্ষার্থীদের আর্থ-সামাজিক অবস্থানের ক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব পড়বে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ড. সালেহ জহুর কর জিডিপি অনুপাত বাড়ানোর জন্য ট্যাক্স বাড়ানোর সরকারি কৌশল, বাজেটের পরিমাণ এবং উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা, বিনিয়োগ-কর্মসংস্থান, শিল্পোন্নয়ন, শিল্প ও কৃষির মধ্যে ভারসাম্য, সামাজিক সুরক্ষা জাল প্রশস্ত করাসহ বাজেটের গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক দিকগুলো নিয়ে আলোচনা করেন। চলমান করোনা মহামারির বিপর্যয়ের প্রভাব মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপের প্রশংসা করেন তিনি।

ড. মুনাল মাহবুব বাজেটে হসপিটালিটি ও পর্যটন শিল্প খাত, নারীর ক্ষমতায়নে আরো বেশি গুরুত্ব দেওয়া উচিত ছিল বলে মন্তব্য করেন।

ড. মো. হাবিবুর রহমান সরকার ঘোষিত বিভিন্ন উদ্দীপনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে ব্যয় বৃদ্ধি পরবর্তী বাজেটে বর্তমান সরকারের জন্য মাইলফলক পদক্ষেপ হিসাবে বিবেচিত হতে পারে বলে মত দেন।

প্রেস বার্তা

Share This Post

আরও পড়ুন