ঢাকাশুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহকে স্মরণ করল শ্রুতিঅঙ্গন

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
ডিসেম্বর ৪, ২০২১ ৬:৫৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটির থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রামে (টিআইসি) শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) বিকালে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণ সভা ও শাস্ত্রীয়-উপশাস্ত্রীয় সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করে শ্রুতিঅঙ্গন।

বাচিক শিল্পী শান্তনু মিত্রের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য দেন শ্রুতিঅঙ্গনের প্রশিক্ষক শিল্পী লিটন দাশ। স্মৃতিচারণ করেন প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহের একমাত্র পুত্র রাজীব সিংহ।

প্রধান অতিথি প্রফেসর সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী বলেন, ‘প্রয়াত প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ ছিলেন একজন সফল ব্যবসায়ী, সমাজহিতৈষী, মুক্তিযোদ্ধা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা। তার বিভিন্ন কর্মকান্ডে অবদানের জন্য মানুষের হৃদয়ে অমর হয়ে থাকবেন।’

বিশেষ অতিথির চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক প্রফেসর মোহাম্মদ আনোয়ার সাঈদ বলেন, ‘মহামারিতে প্রফুল্ল রঞ্জনকে হারিয়ে শুধু শ্রুতিঅঙ্গন নয়, পুরো জাতি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, তা কখনো পূরণ হবার নয়।’

সভাপতির বক্তব্যে চবির উপ উপাচার্য প্রফেসর বেনু কুমার দে বলেন, ‘প্রয়াত প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ সব সময় শ্রুতিঅঙ্গনের বিভিন্ন কর্মকান্ডে সহযোগিতা করছেন। শ্রুতিঅঙ্গন তার অবদানের কথা চিরকাল স্মরণ রাখবেন।’

অনুষ্ঠানে প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহের প্রয়াণে শ্রুতিঅঙ্গনের পক্ষ থেকে শোক ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়। মঙ্গলদ্বীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে সংগীতজ্ঞ আজাদ রহমানের রচনায় শিবরঞ্জনী রাগে বাংলা খেয়াল পরিবেশন করেন শ্রুতিঅঙ্গনের শিক্ষার্থীরা। দ্বিতীয় পর্বের শুরুতে একক নজরুল সংগীত পরিবেশন করেন ঘুমিয়ে গেছে শ্রান্ত হয়ে- নিলয় দত্ত, শ্রাবন্তী শীল- হে চির সুন্দর বিশ্ব চরাচর, নিপা দত্ত- আমার দেয়া ব্যাথা ভুল, সাথী সিংহ- খেলিছ এ বিশ্বলয়ে, ঐন্দ্রিলা চৌধুরী- আমার আপনার চেয়ে আপন যে জন, চন্দ্রিকা বড়ুয়া- আজ নিশিথে অভিসার, সৈকত দত্ত- পিয়া স্বপ্নে এসো নিরজনে, পুষ্পিতা দে- প্রিয় যায় যায় বলো না, প্রিয়বর্ধন- তুমি দুঃখের বেসে এলে বলে, ইতুন দত্ত-আমি যেদিন রইবো না গো লইব চির বিদায়, শোভন বিশ্বাস-খেলা শেষ হল শেষ হয় নাই বেলা, অথৈই বনিক-আসিবে তুমি জানি প্রিয়, পুষ্পিতা শীল-যাবার বেলায় ফেলে যেও একটি খোঁপার ফুল, অর্পিতা শীল- বলেছিলে তুমি তীর্থে আসিবে, অর্পণা শীল-ফিরিয়া যদি সে আসে, সুতপা ধর-আমি চিরতরে দূরে চলে যাব, প্রিয়ম কৃষ্ণ দে-দাও শৈর্য্য দাও ধৈর্য্য হে উদারনাথ, চন্দ্রিমা ধর- নয়ন ভরা জল গো তোমার আঁচল ভরা ফুল, যন্ত্রানুষঙ্গে ছিলেন কী- বোর্ডে নিখিলেশ বড়ুয়া, অক্টোপ্যাডে জনি চৌধুরী, তবলায় সুমন মজুমদার, তিষাণ ঘোষ, অনিক সেনগুপ্ত।

Facebook Comments Box