ঢাকাশুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিএসএফ প্রধান বাংলাদেশের মানুষকে বিনা বিচারে অপরাধী বলার নিন্দা ও প্রতিবাদ

ঢাকা
জুলাই ২৬, ২০২২ ১২:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকা: ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) প্রধান পঙ্কজ কুমার সিং কর্তৃক সীমান্তে নিহত নিরস্ত্র-নিরীহ বাংলাদেশীদের বিনা বিচারে অপরাধী বলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন নাগরিক পরিষদের আহ্বায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন।

সোমবার (২৫ জুলাই) গণ মাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘গত ২১ জুলাই ঢাকায় পাঁচ দিন ব্যাপী বিজিবি-বিএসএফ ৫২তম শীর্ষ বৈঠক শেষে বাংলাদেশের যে সব মানুষকে সীমান্তে বিএসএফ গুলি করে, নির্যাতন করে হত্যা করেছে তাদেরকে বিনা বিচারে অপরাধী বলার পরেও পাঁচ দিন পার হয়েছে। সরকার নিশ্চুপ-নির্বাক। যা খুবই আশঙ্কাজনক ও ভীতিকর। বিএসএফের হাতে নিরীহ-নিরস্ত্র সাধারণ নাগরিক হত্যা হওয়ার ফলে আমরা দেশবাসী প্রত্যাশা করেছিল, ভারতীয় পক্ষ বার বার জীবনঘাতী অস্ত্র ব্যবহার না করার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করবে। অথচ ঔদ্ধ্যত্বপূর্ণ ও অবিবেচকের মত তারা আমাদের নিরীহ-নিরস্ত্র মানুষকে মেরে অপরাধীর তকমা দিচ্ছে। এটি আমাদের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি অবজ্ঞা ও নতজানু পররাষ্ট্র নীতির বহিঃপ্রকাশ। আমরা সরকারের এমন দুর্বল নৈতিকতা ও নতজানু পররাষ্ট্র নীতির প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

শামসুদ্দীন আরো বলেন, ‘এমন ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের পরেও দেশের ‘উচ্ছিষ্টভোগী’ বুদ্ধিজীবী ও সুশীল সমাজের নিরবতা রহস্যজনক। সীমান্ত হত্যা নিয়ে দিল্লীর অনুগত সরকার ও অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর নিবার্ক থাকা সন্দেহজনক ও হতাশাব্যঞ্জক। বার বার সীমান্ত হত্যা, সার্বভৌমত্বের লংঘন, আমাদের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে অবহেলার সামিল। জাতি রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে ভারত শ্রদ্ধা ও সম্মান করে না। যা মুক্তিযুদ্ধের অর্জনকে ভুলুন্ঠিত করছে।’

তিনি বলেন, ‘২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি নিরস্ত্র-নিরীহ কিশোরী ফেলানীকে হত্যা করে কাঁটাতারে ঝুলিয়ে রাখার লাশের ছবি এখনো পৃথিবীর মানবতাবাদী মানুষের বুকে রক্তক্ষরণ করে। তবে কি নিরস্ত্র-নিরীহ কিশোরী ফেলানীও বিএসএফের চোখে মৃত্যুদন্ড পাওয়ার মত অপরাধী ছিল? সীমান্তের ওপার থেকে গুলি করে এ দেশের অভ্যন্তরে বাংলাদেশী হত্যা, সার্বভৌমত্ব লংঘন করে বড়াইবাড়ী দখল করতে এসে গোলাগুলি করা ও তাতে নিহতরা কি অপরাধী? তারা বাংলাদেশের সব মানুষকে অপরাধী মনে করছে নাকি তাদের কাছে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে আগামী দিনে যাদের হত্যা করবে, সেই অপরাধীর কোন তালিকা আছে? তাহলে তারা তা প্রকাশ করুক।’

বিবৃতিতে সীমান্ত হত্যা ও সার্বভৌমত্ব লংঘনের বিরুদ্ধে দেশপ্রেমিক জনগণকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান শামসুদ্দীন।

Facebook Comments Box