শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৭:৩৯ অপরাহ্ন

বাংলালিংক দেবে এশিয়ান উইম্যান ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ ও দক্ষতা

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৯৯ Time View

ঢাকা: মোবাইল অপারেটর প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক এবং এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যানের (এইউডাব্লিউ) মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি সই হয়েছে। এ চুক্তি অনুসারে এইউডাব্লিউর শিক্ষার্থীরা বাংলালিংকের অভিজ্ঞ পেশাজীবীদের প্রশিক্ষণ ও বিভিন্ন প্রোগ্রামের মাধ্যমে নিজেদের দক্ষতা বৃদ্ধির সুযোগ পাবে।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) অনলাইনে অনুষ্ঠিত এ সমঝোতা চুক্তি সই অনুষ্ঠানে বাংলালিংকের চিফ হিউম্যান রিসোর্সেস অ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফিসার মনজুলা মোরশেদ, হেড অফ ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট আয়েশা সাঈদ, হেড অফ কর্পোরেট কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড সাস্টেনিবিলিটি আংকিত সুরেকা এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যানের ডেপুটি রেজিস্ট্রার সানাউল করিম চৌধুরী, মালাকা মর্জিনা, ইন্টার্নশিপ কোওরডিনেটর, সেন্টার ফর ক্যারিয়ার ডেভলাপমেন্ট অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রামস উপস্থিত ছিলেন।

এ চুক্তির আওতায় এইউডাব্লিউর শিক্ষার্থীরা বাংলালিংকের লার্ন ফ্রম দ্যা স্টার্টআপস, ক্যাম্পাস টু কর্পোরেট, ক্যারিয়ার বুটক্যাম্প, ইনোভেটর্স, স্ট্র্যাটেজিক অ্যাসিসটেন্ট প্রোগ্রাম, অ্যাডভান্সড ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম এবং ওমেনটরসহ তরুণদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে পরিচালিত বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

মনজুলা মোরশেদ বলেন, ‘আজকের তরুণদের স্বপ্নের পরিধি বৃহৎ হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে তারা দৃঢ় প্রত্যয়ী। বাংলালিংক সর্বদা বিশ্বাস করে তরুণ প্রজন্মকে সঠিক শেখার প্ল্যাটফর্ম এবং সুযোগ প্রদান করলে তাদের ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠা সম্ভব। পর্যাপ্ত সুযোগ তাদের সম্ভাবনা অর্জনে সহায়তা করবে এবং আমাদের ভবিষ্যতের যোগ্য নেতৃত্ব উপহার দিবে। সমাজে তরুণ ও নারী ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বাংলালিংকের নেয়া বেশকিছু যৌথ উদ্যোগের একটি এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যানের সাথে এ চুক্তি। আমি ভীষণ আনন্দিত যে, এ উদ্যোগের ফলে অনেক তরুণীর উদীয়মান প্রতিভাকে সমৃদ্ধ পেশাজীবনে রূপান্তর করার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।’

সানাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘বাংলালিংকের মতো প্রথম সারির একটি টেলিকম প্রতিষ্ঠানের সাথে এ সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করতে পেরে এইউডাব্লিউ অনেক আনন্দিত। এইউডাব্লিউর শিক্ষার্থীদের বাংলালিংকের মতো মাল্টিন্যাশনাল একটি প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নি হিসেবে কাজ করার জন্য এটি একটি অসাধারণ সুযোগ। এখান থেকে তারা বাস্তব কর্মক্ষেত্রের অভিজ্ঞতা অর্জন ও দক্ষ পেশাজীবী হিসেবে নিজেদের ক্যারিয়ার শুরু করতে সক্ষম হবে। একই সাথে এটি তাদের পেশা সংক্রান্ত সঠিক জ্ঞান দান করে সমৃদ্ধ করবে।’

নিউজ রিলিজ

Share This Post

আরও পড়ুন