বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৮:২৬ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের সাথে অংশীদারিত্ব বাড়ানোর বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী বাইডেন

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩১ Time View

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে লেখা এক চিঠিতে আগামী ৫০ বছরে ওয়াশিংটন ও ঢাকার মধ্যে অংশীদারিত্ব আরো বাড়ানোর বিষয়ে দৃঢ় আত্মবিশ্বাস প্রকাশ করেছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কের ৫০ বছরের মাইলফলক পালন উপলক্ষে লেখা ওই চিটিতে তিনি বলেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, আমাদের অংশীদারিত্ব আগামী ৫০ বছর ও তারপরও বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘১৯৭১ সালের যুদ্ধের পর দেশ পুনর্গঠনে ও বর্তমানের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে বাংলাদেশিদের কর্মশক্তি, উর্বর মস্তিষ্ক ও উদ্ভাবন অবশিষ্ট বিশ্বের কাছে একটি মডেল হিসেবে কাজ করে।’

বাইডেন আরো বলেন, ‘উন্নয়ন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও সন্ত্রাসবাদ দমন বিষয়ে আমাদের অংশীদারিত্ব নিয়ে আমরা গর্ব করি।’

তিনি বলেন, ‘এ দুই দেশ জলবায়ু সংকট মোকাবেলায়, গণহত্যার হাত থেকে রোহিঙ্গাদের প্রাণ বাঁচাতে সহায়তায় ও বিশ্বব্যাপী শান্তি রক্ষার সমর্থনে এক সাথে কাজ করে। বাংলাদেশি নাগরিক ও আমেরিকানরা গণতন্ত্রের আদর্শ, সমতা এ মানবাধিকারের প্রতি সম্মান জানানোর বিষয় একইভাবে শেয়ার করেন। এসব একটি ভাল, নিরাপদ ও সমৃদ্ধশালী সমাজের ভিত্তি।’

বাইডেন বলেন, ‘১৯৫৮ সাল থেকেই এ দুই দেশ শিক্ষা ও বাণিজ্যিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে পরস্পরের সাথে যুক্ত রয়েছে। ওই সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুক্তরাষ্ট্রে আয়োজিত ৩০ দিনের এক মত বিনিময় কর্মসূচিতে নেন।’

প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, ‘আমাদের প্রতিরক্ষা সম্পর্ক এ যাবতকালের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী অবস্থায় রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ও নেভী হচ্ছে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে অবাধ চলাচল ও স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে মূল্যবান অংশীদার। তারা মানব ও অবৈধ মাদক পাচার বন্ধে আঞ্চলিক প্রচেষ্টার ক্ষেত্রে অবদান রাখছে।’

বাইডেন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় একত্রে কাজ করে ও ওয়াশিংটন ঢাকাকে ৬১ মিলিয়নেরও বেশি টিকা ডোজ ও ১৩ কোটি দশ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি আর্থিক সহযোগিতা দেয়।’

Share This Post

আরও পড়ুন