শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন

ফুড ডেলিভারি স্টার্টআপ হাংরিনাকি কিনে নিল দারাজ

পরম বাংলাদেশ / ৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৫ মার্চ, ২০২১

ঢাকা: ফুড ডেলিভারি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হাংরিনাকি অধিগ্রহণ দারাজ। এর মাধ্যমে নিজেদের কার্যপরিসীমা সম্প্রসারণের ধারাবাহিকতায় নতুন সূচনা করল আলীবাবা গ্রুপের অঙ্গ সংগঠন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) ঢাকার বিআইসিসিতে দারাজ ও হাংরিনাকির যৌথভাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ অধিগ্রহণের ব্যাপারে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দারাজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মোস্তাহিদল হক এবং হাংরিনাকির প্রধান নির্বাহী ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা এডি আহমেদ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, হাংরিনাকির অধিকাংশ স্থাবর এবং অস্থাবর সম্পত্তি দারাজ অধিগ্রহণ করেছে। তবে এর কারণে হাংরিনাকির বর্তমান ব্যবসায়িক কার্যাবলীতে কোন প্রভাব পড়বে না, অর্থাৎ হাংরিনাকির সব কর্মচারী ভবিষ্যতেও যথানিয়মে কাজ করে যাবেন।

উল্লেখ্য, সরাসরি দারাজের পরিচালনায় পৃথক ও স্বতন্ত্র ফুড প্ল্যাটফর্ম হিসেবে পরিচালিত হবে হাংরিনাকি।

অনুষ্ঠানে সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, ‘আমাদের ক্রেতাদের জন্য আমরা একটি ওয়ান স্টপ সল্যুশন হতে চাই। আর সে হিসেবেই আমরা স্বাভাবিক পদক্ষেপ হিসেবেই ফুড ডেলিভারি ব্যবসায় প্রবেশ করেছি। একটি বিশ্বস্ত কাস্টমার বেজ নিয়ে হাংরিনাকি বাংলাদেশে ফুড ডেলিভারি ব্যবসায় পথিকৃৎ। আর এ কারণেই আমরা বিশ্বাস করি, একেবারে প্রাথমিক পর্যায় থেকে আমাদের নিজেদের ফুড ডেলিভারি ব্যবসায় শুরু করার চেয়ে,ম হাংরিনাকি অধিগ্রহণ করা শ্রেয়। অবকাঠামো, প্রযুক্তি ও মানব সম্পদে বিনিয়োগের মাধ্যমে আমরা হাংরিনাকিকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারব বলে আমার বিশ্বাস।’

হাংরিনাকির প্রধান নির্বাহী এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা এডি আহমেদ বলেন, ‘এটা সবার জন্যই আনন্দদায়ক মুহূর্ত। এ অধিগ্রহণের মাধ্যমে বোঝা যায়, আমাদের ই-কমার্স খাত একটি আশাব্যঞ্জক অবস্থানে রয়েছে। এছাড়াও দেশীয় স্টার্ট-আপ এবং উদ্যোক্তাদের জন্য এটি সুখবর বয়ে এনেছে। এমন অধিগ্রহণের দৃষ্টান্তই আমাদের বাজারে ইতিবাচক মনোভাব তৈরি করবে এবং অর্থনীতিকে গতিশীল রাখবে। দারাজের সাথে মিলে আমরা হাংরিনাকিকে আরো শক্তিশালী ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলবো।’

২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ফুড ডেলিভারি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হাংরিনাকি। দেশের পাঁচটি শহরে অসংখ্য রেস্টুরেন্ট, ক্লাউড কিচেন এবং হোম কিচেন নিয়ে এ প্রতিষ্ঠানটি হাজার হাজার গ্রাহককে প্রতিদিন পৌঁছে দিচ্ছে সুস্বাদু খাবার। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, কক্সবাজার ও নারায়ণগঞ্জে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ এখন তাদের পছন্দ মত খাবার অর্ডার করতে হাংরিনাকি ব্যবহার করে থাকেন।

অন্যদিকে, দারাজ বর্তমানে দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস। দারাজ ক্রেতা ও বিক্রেতার সংযোগ ঘটানোর মাধ্যমে লক্ষাধিক বিক্রেতার ক্ষমতায়নে কাজ করছে। শতাধিক ক্যাটাগরির আওতায় কোটিরও বেশি পণ্য পাওয়া যায় দারাজে, যার চাহিদা পূরণে প্রতিমাসে প্রতিষ্ঠানটি দেশের আনাচে-কানাচে ২০ লাখেরও বেশি প্যাকেজ ডেলিভারি দিয়ে থাকে।
দারাজ ও হাংরিনাকির এ একীভূতকরণ হাংরিনাকির জন্য ব্যবসায়িক কার্যপরিচালনায় সমৃদ্ধি বয়ে আনবে বলে আশা করা যাচ্ছে। আলিবাবা গ্রুপের মালিকানাধীন দারাজ বাংলাদেশে ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা এবং কাস্টমার সার্ভিস প্রসঙ্গে ইতোমধ্যেই যে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে, তা নিঃসন্দেহে হাংরিনাকির জন্য ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবে।

নিউজ রিলিজ

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ