রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন

ফিলিস্তিনিদের পক্ষে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরাইলের বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১
  • ৩৩৮ Time View

ফিলিস্তিনের গাজায় নিরস্ত্র সাধারণ মানুষের উপর ইহুদীবাদী ইসরাইলী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর নির্বিচারে বিমান হামলা এবং জেরুজালেমে বাড়িঘর থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাকালীন যুগ্ন মহাসচিব ও চট্টগ্রাম মহানগর সেক্রেটারি মাওলানা মঈনুদ্দীন রুহী।

হেফাজত নেতা মাওলানা মঈনুদ্দীন রুহী শুক্রকার (১৪ মে) এক বিবৃতিতে বলেন, ‘পবিত্র রমজান আসলেই ইসরাইল নামক সন্ত্রাসী রাষ্ট্রটি মুসলমানদের ওপর তার বর্বরোচিত হামলার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। আর একে একে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে ফিলস্তিনি নারী, পুরুষ, শিশু, যুবক বৃদ্ধসহ বহু মানুষ।’

তিনি বলেন, ‘ইহুদীবাদী ইসরাইলী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর এ বর্বরোচিত হামলায় আমেরিকাসহ পশ্চিমা বিশ্ব সন্ত্রাসীদের পক্ষে নিলেও আরব রাষ্ট্রগুলোসহ মুসলিম বিশ্ব নীরব হয়ে দেখতে থাকে। তবে বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী মসজিদুল আকসায় সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা এবং ফিলিস্তিনি শহীদদের প্রতি শোক জানিয়ে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিয়েছেন। এ জন্য আমি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।’

মাওলানা রুহী আরো বলেন, ‘পৃথিবীর সব সন্ত্রাসের মূলেই হচ্ছে ইসরাইল। ফিলিস্তিনি ভূমি দখল করে, সেখানের ৯০ ভাগ আরব জনগণকে উৎখাত করে ইসরাইল নামক রাষ্ট্রের সৃষ্টিই হচ্ছে আধুনিক সন্ত্রাসবাদের শুরু। ইসরাইলকে থামাতে না পারলে সারা দুনিয়াকে সন্ত্রাস মুক্ত করা যাবে না। কারণ ইসরাইল হচ্ছে সারা দুনিয়ার সন্ত্রাসের মূল উৎস।’

‘কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে, এ বাস্তবতাটা আরব বিশ্বের নেতারা এখনও বুঝেনি বা বুঝতে চাইনি। অথবা বুঝেও না বোঝার ভান করে বসে আছে। তা না হলে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, মিশর, কুয়েত, জর্ডানসহ আরো যে সব আরব দেশ আছে। তারা কেন নিষ্ক্রিয়?’

রুহী বলেন, ‘আমি মনে করি, সব আরব দেশ এবং মুসলিম দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ হওয়া দরকার। ফিলিস্তিনিদের এবং আল আকসা মসজিদ রক্ষায় তাদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করা দরকার।’

তিনি ফিলিস্তিনিদের পক্ষে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরাইলের বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

প্রেস বার্তা

Share This Post

আরও পড়ুন