শিরোনাম
সিভাসুর বিভিন্ন সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষা ১৫ জুন থেকে অনলাইনে কবিতা: আমার আমি । ইমতিয়াজ মাহমুদ নাঈম পরিকল্পিতভাবে ভাইকে ফাঁসানোর আগেই র‌্যাবের হাতে ধরা করোনাকালে ঈদুল ফিতরে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আমাদের করনীয় মোমেনবাগ ক্লাবের উদ্যোগে দুস্থ পথচারীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ মুরাদপুরে রক্তাক্ত গন্ডামারা: এক । শুরু থেকেই স্থানীয়রা এস আলম গ্রুপকে অবিশ্বাস করতে থাকে সিএমপির সন্ত্রাসী তালিকায় আবুল হাসেম বক্কর ও হাসান মুরাদ; যুবদলের নিন্দা ও প্রতিবাদ ফেনীতে ইসলামী হোমিওরিসার্চ সেন্টারের ৪১ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩৩; নতুন সনাক্ত এক হাজার ২৩০ জনের উপায়-এ সবচেয়ে কম খরচে এটিএম ক্যাশ আউট
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

ফটো সেশন করতে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে এসে প্রতারণার খপ্পরে তরুণী, গ্রেফতার তিন ফ্রড

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২০৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

চট্টগ্রাম: ফেইসবুক ব্যবহার করে সুন্দরী তরুণী মডেলের সাথে প্রতারণার দায়ে তিনজন প্রতারককে চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় থেকে গ্রেফতার করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) ডাবলমুরিং মডেল থানা পুলিশ। এ সময় প্রতারক চক্রের সদস্যদের নিকট হতে প্রতারণার মাধ্যমে হাতি নেওয়া নগদ ছয় হাজার ৫০০ টাকা ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন চট্টগ্রাম নগরীর বন্দর থানার মধ্যম গোসাইলডাঙ্গার তিন নাম্বার ফকিরহাটের নুরুল ইসলামের পুত্র আনোয়ার ইসলাম সানি (২৭), মো. জসিমের পুত্র মো. আরাফাত (২৬) এবং মো. আলমগীরের পুত্র আহমেদ উল্লাহ (২৩)।

লাভলী আক্তার লিপি ঢাকায় থাকেন এবং ফটো সেশন মডেলিংয়ের কাজ করেন। ফেসবুক আইডির মাধ্যমে গত ২০১৮ সালে আনোয়ার ইসলাম সানির সাথে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের সুবাধে সানি লাভলীকে চট্টগ্রামে বিভিন্ন ব্রান্ডের ফটো সেশনের কাজ আছে বলে লাভলীসহ আরো একজন মডেল লাগবে এবং ভালো মুনাফা হবে বলে জানায়। এতে লাভলী সরল বিশ্বাসে গত ৩০ জানুয়ারি সকালে ঢাকা হতে চট্টগ্রামে এসে রাত প্রায় সাড়ে নয়টার দিকে সানির কথা মত ডবলমুরিং মডেল থানাধীন আখতারুজ্জামান সেন্টারের সামনে দেখা করেন। পরবর্তী আনোয়ার ইসলাম সানি তার অন্য সঙ্গীদের সহায়তায় প্রতারণার মাধ্যমে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে লাভলীর কাছে থাকা ভ্যানিটি ব্যাগ ও মোবাইল নিয়ে চলে যায়।

এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডবলমুরিং মডেল থানার একটি দল নগরীর বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আনোয়ার ইসলাম সানিকে গ্রেফতার করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক বাসা হতে লাভলীর ভ্যনিটি ব্যাগ নগদ টাকাসহ উদ্ধার করা হয়। সানিকে নিয়ে থানা এলাকার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে মো. আরাফাত ও আহমেদ উল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তী গ্রেফতারকৃত তিনজনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক বিক্রয় ডটকমের মাধ্যমে বিক্রয়কৃত মোবাইল ফোন চকবাজার থানাধীন গুলজার টাওয়ারের সামনে হতে রবিউল হোসেন হৃদয়ের হেফাজত হতে উদ্ধার করা হয়।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ