ঢাকারবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পুরুষের পাশাপাশি এবার একুশে পদকের তালিকায় নারীদেরও দেখে ভালো লেগেছে

নুরুন্নবী নুর
ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২১ ৩:৪২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাংলাদেশের ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিককে ২০২১ সালের একুশে পদক প্রদানের জন্য মনোনীত করেছে।

আমার আলোচনার বিষয় ২১ জন নিয়ে নয়, যে কজন আমার অস্তিত্বের সাথে সম্পৃক্ত, তাদেরকে ঘিরে। তবে যারা আলোচনার বাইরে থাকবেন, তারা প্রত্যেকে আমার কাছে খুবই শ্রদ্ধেয়। তাদের প্রতি আমার ভালোবাসাও কোনো অংশে কম নয়। তাদের এ অর্জনের জন্য শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন প্রকাশ করছি।

মূল কথা হল, পুরুষের পাশাপাশি এবার একুশে পদকের তালিকায় নারীদেরও অবস্থান দেখে খুবই ভালো লেগেছে। ‘শিল্পকলা অভিনয়’ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য যে দুজনকে একুশে পদক-২০২১ মনোনীত করা হয়েছে, তাদের একজন হলেন সালমা আকতার সুজাতা (সুজাতা আজিম)। নারী অভিনয় শিল্পীদের যেহেতু একুশে পদকে সম্মানিত করা হয়েছে, সেহেতু ধাপে ধাপে আনোয়ারা, সুমিতা দেবী, ববিতা, কবরী ও শাবানার মতো গুণী শিল্পীদেরও যাতে যোগ্য সম্মান দেয়া যায়, ভেবে দেখার অনুরোধ রইল।

অভিনয়ে অন্যজন হলেন রাইসুল ইসলাম আসাদ। দেশের প্রতিতযশা চলচ্চিত্র নির্মাতা তানভীর মোকাম্মেলের চলচ্চিত্র ‘লালসালু’তে রাইসুল ইসলাম আসাদের অভিনয়, আমাকে বেশ মুগ্ধ করেছে। তাছাড়া একই চলচ্চিত্রকারের ‘লালল’ চলচ্চিত্রেও প্রশংসনীয় অভিনয় করে, চলচ্চিত্র প্রেমীদের কাছে প্রিয় হয়ে গেছেন। এরূপ অনেকগুলো চলচ্চিত্রে তার চরিত্রানুযায়ী অভিনয়শৈলী দিয়ে দেশের চলচ্চিত্রকর্মী থেকে দর্শক পর্যন্ত প্রিয় হয়ে আছেন। তার পদকপ্রাপ্তি সব সংস্কৃতি প্রেমী মানুষদের জন্য বেশ আনন্দের।

সম্প্রতি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ২০২০ এ নাটকে রবিউল আলমের নাম ঘোষণা করা হয়। চট্টগ্রামের মানুষের এমন অর্জন আমরা নাট্যশিল্পীদের জন্য অবশ্যই অনুপ্রেরণার। খুশির খবর হজম করতে না করতে আরেকটি খুশির খবর যখন কানে আসল, গর্বে বুকটা ভরে গেল। চট্টগ্রামে থেকে যে সব সংস্কৃতি চর্চার মানুষ জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হোন, তাদের প্রতি সম্মানটা আরও বেড়ে যায়। অন্যজন হলেন আহমেদ ইকবাল হায়দার স্যার, আমার থিয়েটার শিক্ষক, যিনি ‘শিল্পকলা নাটক’ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য একুশে পদক-২০২১ এর জন্য মনোনীত হয়েছেন। থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রামের তির্যক নাট্যদল কর্তৃক স্যারের তত্বাবধানে থিয়েটার কর্মশালায় তিন মাসের কোর্স করার সুযোগ হয়েছে। স্যারের নির্দেশনায় ‘ইডিপাস’ নাটকেও অভিনয় করার সুযোগ হয়েছে।

চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চলচ্চিত্রতাত্ত্বিক সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকি, আমার চলচ্চিত্র চর্চার শিক্ষক, যিনি ‘শিল্পকলা চলচ্চিত্র’ ক্ষেত্রের জন্য একুশে পদক- ২০২১ মনোনীত হয়েছেন। সম্প্রতি বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরাম (বিএসএফএফ) কর্তৃক আয়োজিত চলচ্চিত্র নির্মাণ কর্মশালায় উনাকে মেহমান হিসেবে পেয়েছিলাম। সে সময় তিনি আমাদের তার কর্মময় চলচ্চিত্র জীবন সম্পর্কে বিশদভাবে জানিয়েছেন। তখন থেকে সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকিকে আরও বিশদভাবে জানার সৌভাগ্য হয়েছিল। তাকে একুশে পদকে মনোনীত করায় বেশ খুশি লাগছে। ।

বাংলাদেশের একজন প্রাজ্ঞ আবৃত্তি শিল্পী ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায়। তাকে ‘শিল্পকলা আবৃত্তি’ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য একুশে পদকে মনোনীত করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে তার ‘নাট্য: স্বর ও সংলাপ’ বইটি পড়ার সুযোগ হয়েছিল। বইটি পড়ে পরবর্তী নানাভাবে এ আবৃত্তিকারকে জানার সুযোগ হয়েছিল। মাঝেমাঝে উনার কবিতা আবৃত্তি শুনি!

আমার মতে, সঠিক ও যোগ্য মানুষদেরকে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় একুশে পদক-২০২১ প্রদানে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

Facebook Comments Box