শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা তহবিলে এক কোটি টাকা অনুদান দিল চট্টগ্রাম চেম্বার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেনের ছুটি বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম’র আইটি বিশেষজ্ঞ গ্রেফতার চট্টগ্রামে সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে দুই মাসব্যাপী আন্তঃবিভাগ বির্তক প্রতিযোগিতা শুরু নাভানাসহ সীতাকুণ্ডের সব কারখানায় ঈদুল আজহার আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস দাবি পরিবেশ বিষয়ক গল্প : মন পড়ে রয় । নাজিম হোসেন শেখ পিএইচপি অটো মোবাইলসের তৈরি অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল সোতোকান কারাতে স্কুল চট্টগ্রামের কারাতে বেল্ট প্রতিযোগিতা সম্পন্ন চট্টগ্রামের পাহাড় অপরাজনীতি, অপেশাদার আমলাগিরির শিকার হাটহাজারী নাজিরহাট কলেজে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

পাহাড় খেয়ে স্যানমার প্রপার্টিজের স্যানমার গ্রীন পার্কের মাশুল দুই লাখ টাকা

রিপোর্টারের নাম / ১৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম মহানগরীর আরেফিন নগরে অবৈধভাবে পাহাড় কাটার দায়ে স্যানমার প্রপার্টিজের ‘স্যানমার গ্রীন পার্ক’ এর উপর দুই লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ ধার্য্য করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়।

বুধবার (৪ নভেম্বর) শুনানী শেষে কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্মদ নূরুল্লাহ নূরী ক্ষতিপূরণ প্রদানের এ আদেশ দেন।

গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মোহাম্মদ নূরুল্লাহ নূরী জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ১৯ অক্টোবর আরেফিননগর এলাকায় জালালাবাদ মৌজাস্থিত ‘স্যানমার গ্রীন পার্ক’ নামের নির্মানাধীন ভবন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক পাহাড় কাটার বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মিয়া মাহমুদুল হক ও পরিদর্শক আবুল মুনসুর মোল্লা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ।

পরিদর্শনকালে নির্মানাধীন ২৬ তলা ভবনের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে সাম্প্রতিক সময়ে পাহাড় কাটার সত্যতা পাওয়া যায়।

বুধবার স্যানমার প্রপার্টিজ কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত শুনানীতে এক হাজার বর্গফুট পাহাড় কাটার বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় পাহাড় কর্তনের মাধ্যমে পরিবেশ ও প্রতিবেশ ব্যবস্থার ক্ষতি সাধনের দায়ে ‘স্যানমার গ্রীন পার্ক’ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে দুই লাখ টাকা পরিবেশগত ক্ষতিপূরণ আরোপ করা হয়।

ধার্য্যকৃত অর্থ আগামী সাত দিনের মধ্যে পরিশোধের জন্য নির্দেশ এবং পাহাড় পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনাসহ পরিবেশ অধিদপ্তরের পূর্বানুমতি/ছাড়পত্র ব্যতীত ওই ভূমিতে পাহাড় কর্তন, বহুতল ভবন অথবা কোনরুপ উন্নয়ন কর্মকান্ড শুরু/পরিচালনা না করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান মোহাম্মদ নূরুল্লাহ নূরী।

এমএ/পবা

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ