মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

পাহাড়তলী বধ্যভূমির জমি দখল; সীমানা ভেঙ্গে গাছ কেটে সড়ক নির্মাণ

পরম বাংলাদেশ প্রতিবেদন
  • প্রকাশ : রবিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩৪৮ Time View

চট্টগ্রাম: প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলী বধ্যভূমির জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। মহলটি বধ্যভূমির সীমানা ভেঙ্গে রাস্তা নির্মাণের মাধ্যমে বধ্যভূমির জমি দখলের পাঁয়তারা করছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এর মাধ্যমে বধ্যভূমির বাকি জায়গাগুলোও সরকারের হাত ছাড়া হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা বলছেন। ইতোমধ্যে এই বধ্যভূমির বিরাট অংশ একটি প্রভাবশালী মহল দখল করে নিয়েছে বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, পাহাড়তলী বধ্যভূমির বাম পার্শ্বের সীমানা ভেঙ্গে ও গাছ কেটে চলাচলের জন্য সড়ক করা হয়েছে। রাস্তার সম্মুখভাগে লোহার গিরিল দেওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কয়েক দিন আগেও এই রাস্তা ছিল না। হঠাৎ করে গাছ কেটে কে বা কারা রাস্তাটি করেছে।

এ দিকে, প্রভাবশালী মহল কর্তৃক পাহাড়লী বধ্যভূমির জমি দখলের প্রতিবাদে সরব হয়েছেন চট্টগ্রামের কয়েক জন সংস্কৃতি কর্মী।

সাংবাদিক ও নাট্যকার প্রদীপ দেওয়ানজী রচিত ‘ইউএসটিসি বধ্যভূমি’ নাটকের নির্দেশক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) নাট্যকলা বিভাগের অতিথি শিক্ষক মোস্তফা কামাল যাত্রা সমাজ মাধ্যম ফেসবুকে এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে ফেসবুকে যাত্রা লিখেছেন, ‘পাহাড়তলী বধ্যভূমি এর জমি দখল! বাম পার্শ্বের সীমানা ভেঙ্গে; গাছ কেটে সড়ক নির্মাণের মাধ্যমে সফলভাবে পাহাড়তলী বধৌভূমির জমি দখল। ইতিপূর্বে ডান পার্শ্বে ‘জিয়া বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন ভবন’ তুলে জমি দখলের কোন কার্যকর প্রতিবাদ না হওয়ার চূড়ান্ত পরিণতি। হায় চট্টগ্রামবাসী………..’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাক হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস্‌ সাধারণ নাগরিক, মুক্তিযোদ্ধা, বুদ্ধিজীবী, সরকারি-বেসরকারি চাকুরীজীবী ও সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের ধরে নিয়ে হত্যার জন্য কিছু নির্দিষ্ট স্থানকে ব্যবহার করতো, যেগুলো পরবর্তী বধ্যভূমি হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।

Share This Post

আরও পড়ুন