মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন

তিন বছরেও প্রস্তাবনার মধ্যে সীমাবদ্ধ চবিতে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণ

পরম বাংলাদেশ
  • প্রকাশ : শনিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৪২ Time View

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ক্যাম্পাস এলাকায় প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণের কার্যক্রম শুরুর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের (বিএইচটিপিএ) ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগমের নেতৃত্বে একটি বিশেষজ্ঞ দল নির্মিতব্য স্থান পরিদর্শন করেছেন।

একই সাথে প্রতিনিধি দল শনিবার (১৪ নভেম্বর) চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারের সাথে তার অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাৎ এবং মত বিনিময় সভা করেন।

প্রতিনিধি দলের মধ্যে ছিলেন বিএইচটিপিএ’র অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের পরিচালক এএনএম সফিকুল ইসলাম, অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের উপ পরিচালক খাদিজা আক্তার প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের প্রথম দিকে হোটেল রেডিসনে একটি অনুষ্ঠানে চবিতেসহ চট্টগ্রামে তিনটি হাই-পার্ক নির্মাণের কথা বলেছিলেন। পরে ২০১৯ সালের ১৮ জানুয়ারি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার চবি ক্যাম্পাসে আসেন এবং ক্যাম্পাসে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের জন্য চবি কর্তৃক বরাদ্দকৃত ভূমি সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। সে সময় মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্কের জন্য চবি কর্তৃক বরাদ্দকৃত ভূমি পরিদর্শন করে অত্যন্ত সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং হাই-টেক প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণকে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। একই বছরের ২২ মে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণের লক্ষ্যে ঢাকাস্থ আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এবং চবির সাথে এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর পর কেটে গেছে প্রায় তিন বছর।

মত বিনিময়কালে উপাচার্য শিরীণ আখতার বলেন, ‘চবি কর্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক স্থাপনের সম্ভাব্য সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য ইতোমধ্যে ভূমি বরাদ্ধ দিয়েছে এবং সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে এখতিয়ারভুক্ত সকল প্রকার সুবিধা প্রদানে প্রস্তুত রয়েছে।’

বিশেষজ্ঞ দল হাই-টেক পার্ক নির্মাণের ব্যাপারে চবি উপাচার্যের গৃহীত পদক্ষেপসমূহের ভূয়সী প্রশংসা করেন। দ্রুত সময়ের মধ্যে এ বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক নির্মাণে তাঁদের পক্ষ থেকে সকল প্রকার উদ্যোগ গ্রহণ এবং সম্ভাব্য সকল সুবিধা প্রদানের দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পরে চবি উপাচার্য বিশেষজ্ঞ টিমকে সাথে নিয়ে প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক এলাকা পরিদর্শন করেন।

Share This Post

আরও পড়ুন