শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৮ অপরাহ্ন

জ্বীনের বাদশা পরিচয়ে ২৮ লাখ টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার তিন

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৪ Time View

চট্টগ্রাম: দীর্ঘ ২২ বছর পর সৌদি আরবে থেকে দেশে ফিরেন মো. আবুল হাছান সহিদ। ছুটি শেষে ফের সৌদি আরবে ফেরত যেতে চাইলে দেখেন, তার ভিসাটিতে সৌদি আরবে প্রবেশ নিষিদ্ধ সীলমোহর দেয়া। তিনি আর সৌদি আরবে যেতে পারেননি। প্রতারণার শিকার হয়ে ব্যবসায়ের সব টাকা হারিয়ে এক প্রকারের নিঃস্ব হয়ে জীবন যাপন করতে করছিলেন।

গত ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে চট্টগ্রাম সিটির কোতোয়ালী থানাধীন হাজারী গলিস্থ স্বর্ণের দোকানে তার স্ত্রীর স্বর্ণ বিক্রির করার জন্য গেলে স্বর্ণের দোকানের কর্মচারীর সাথে দেখা হয় আবুল হাছান সহিদের। তাকে সে ওই ঘটনা খুলে বললে সে এর সমাধানের জন্য জ্বীনের বাদশা নামের মো. আব্দুল মান্নানের (৫৮) কাছে নিয়ে যায়। সে ধর্মীয় আধ্যাত্মিক শক্তি এবং জ্বীনের মাধ্যমে সৌদি নাগরিক আদনান সাঈদ আল সাদীকে (৪২) বাংলাদেশে এনে দিতে পারবে এবং বাংলাদেশে এসে তার সম্পূর্ণ টাকা ফেরত দিয়ে যাবে বলে জানায়। ওই টাকা ও সৌদি নাগরিককে বাংলাদেশে ফেরত আনতে হলে শুরুতে দুই লাখ টাকা এবং তিন ভরি স্বর্ণ ও আমেরিকান এক হাজার টাকার ডলার দাবি করে ,মান্নান। বিভিন্ন জিনিসপত্র কিনতে হবে বলে প্রথমে দুই লাখ টাকা এবং তিন ভরি স্বর্ণ নেয় আব্দুল মান্নান। পরবর্তী ওই সৌদি নাগরিককে এনে দিবে বলে গত মার্চ-সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে নগদ ও বিকাশ নাম্বারে মোট ২৮ লাখ ৩৬ হাজার টাকা নেয়। আব্দুল মান্নান ও তার দল পরস্পর যোগসাজশে প্রতারণা করে অর্থ আত্মসাৎ ও হুমকি দেয়ায় মো. আবুল হাছান সহিদ এজাহার দায়ের করলে একটি মামলা রুজু হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালী থানার এসআই মো. মেহেদী হাসান গোপন খবরের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) কোতোয়ালীর হাজারী গলি এলাকা থেকে আবু তৈয়বকে (৫৮) গ্রেফতার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে তার নাম ও ঠিকানা প্রকাশ ও ঘটনার কথা স্বীকার করে। পলাতক আসামীর নাম ও ঠিকানা জানায় সে। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মো. মেহেদী হাসান কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানা হোয়াক্যাং এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত সাড়ে বারেটার দিকে মো. আব্দুল মান্নান ও মো. জোবাইর হোসাইন রিজভীকে গ্রেফতার করে।

Share This Post

আরও পড়ুন