ঢাকাশুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জেনারেশন আনলিমিটেড ও জাগো ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ছয় বিভাগে বুট ক্যাম্প সম্পন্ন

ঢাকা
ডিসেম্বর ২৯, ২০২২ ৯:১৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঢাকা: ২০২২ ইমাজেন ভেঞ্চার্স ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশের ছয়টি বিভাগে জলবায়ু পরিবর্তনের উপর বুট ক্যাম্প সম্পন্ন করেছে। এগুলো ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ। ইউনিসেফ বাংলাদেশ, জাগো ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম, স্টার্ট এন্ড ইম্প্রুভ ইওর বিজনেস (এসআইওয়াইবি) বাংলাদেশ, ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশন (আইএলও) এবং টেকনোভেশন গার্লস বাংলাদেশের সহায়তায় জেনারেশন আনলিমিটেড (জেনইউ) ইয়ুথ চ্যালেঞ্জের আয়োজন করে। ইমাজেন ভেঞ্চার্স ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ হল একটি গ্লোবাল জেনইউ ফ্ল্যাগশিপ ইনিশিয়েটিভ এবং এ বছর সারা বিশ্বের চল্লিশটিরও বেশি দেশে তা বাস্তবায়িত হয়েছে।

বাংলাদেশে, ইয়ুথ চ্যালেঞ্জে অংশগ্রহণের জন্য আবেদন প্রচারের আহ্বান প্রায় আট মিলিয়ন যুবকের কাছে পৌঁছেছে। প্রাপ্ত আবেদনের মূল্যায়নের পর, ১৫ – ২৪ বছর বয়সী ৩৫০ জন অংশগ্রহণকারী ৬২টি দলে তাদের জলবায়ু সংক্রান্ত উদ্বেগগুলিকে সমাধানে বিকাশের জন্য তিন দিনের বুট ক্যাম্পে অংশ নেয়।

ক্যাম্পের একজন অংশগ্রহণকারী বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের বুট ক্যাম্প ছিল একটি অভিজ্ঞতা; যা আমাকে বিশ্বে পরিবর্তন আনতে তারুণ্যের শক্তি দেখিয়েছে। আমি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে অনেক কিছু শিখেছি এবং একটি প্রকল্প তৈরি করছি যা আমার সম্প্রদায়ের মধ্যে সত্যিকারের প্রভাব ফেলতে পারে।’

ইমাজেন ভেঞ্চার্স ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ তরুণ নারী ও পুরুষদের জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম দিয়েছে; যাতে সবচেয়ে বেশি চাপের পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার সম্ভাবনাসহ জলবায়ু-সচেতন সমাধানগুলিকে সহযোগিতা করতে এবং ডিজাইন করতে এবং একই সময়ে, সামাজিক হয়ে উঠতে গুরুত্বপূর্ণ জ্ঞান, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা অর্জন করে উদ্যোক্তা, যুব নেতা ও ইতিবাচক পরিবর্তন নির্মাতারা। বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি, শেলডন ইয়েট, ঢাকায় বুট ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, শহুরে দূষণ, বিশুদ্ধ পানীয় জলের অভাব এবং বন্যা ও খরার মারাত্মক প্রভাবের জন্য সমাধান ডিজাইন করেছেন এমন তরুণদের সাথে দেখা করা অনুপ্রেরণাদায়ক ছিল। জলবায়ু ও পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তাদের কঠোর পরিশ্রম, দলগত মনোভাব এবং উদ্ভাবনী পন্থা তরুণদের তাদের সৃজনশীলতা প্রকাশের জন্য আরো বেশি সুযোগ দেয়ার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে।’

ছয়টি বিভাগের প্রতিটিতে তিন দিনের বুট ক্যাম্পের পর সীড ফান্ড ও পরামর্শ সহায়তায় ইনকিউবেশনের জন্য ২০টি প্রোটোটাইপ সলিউশন বাছাই করা হয়েছিল। ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে জেনইউ বাংলাদেশ উচ্চ-স্তরের স্টিয়ারিং কমিটির সভায় বর্তমানে ইনকিউবেট করা ২০টি দল তাদের চূড়ান্ত প্রোটোটাইপ সমাধানগুলি প্রদর্শন করবে।

২০২২ সালের মার্চ মাসে জেনইউ স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে সম্মতি অনুযায়ী, জেনইউ ফাউন্ডেশন পার্টনার জাগো ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট, ইউনিসেফের সহায়তায় জেনইউর এজেন্ডার সাথে সরাসরি ও অর্থপূর্ণ যুব অংশীদারিত্ব ও নেতৃত্ব নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশ ইয়ুথ অ্যাকশন টিম (বিওয়াইএটি) প্রতিষ্ঠা করেছে। ৮০ জন বিওয়াইএটি সদস্য জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে তাদের ভূমিকা ও দায়িত্ব নিয়ে আলোচনা করার জন্য নভেম্বরে একটি দল হিসেবে ঢাকায় প্রথম বারের মত মিলিত হয়েছিল। জেনইউর বাংলাদেশ সভাপতি ও এর স্টিয়ারিং কমিটির সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ ৮০ জন সদস্যদের সাথে সাক্ষাত করেন।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের আটটি বিভাগের বিওয়াইএটি সদস্যদের সাথে সাক্ষাত আমার মধ্যে আশা ও আত্মবিশ্বাস পুনরুজ্জীবিত করেছে যে, আমরা, সরকারী ও বেসরকারী অংশীদার, যখন আমরা তরুণদের সাথে সরাসরি অংশীদারি করি, তখন যে কোন উন্নয়ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে পারি। আমি এ প্রতিশ্রুতিশীল যুব নেতাদের সাথে জড়িত হওয়ার জন্য উন্মুখ, যাতে আমরা এক সাথে উন্নয়নের বিষয়ে ইতিবাচক পরিবর্তন নিশ্চিত করতে পারি; যা বাংলাদেশের তরুণদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ হবে।’

জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক করভী রাকসান্দ বলেন, ‘আজকের তরুণরাই জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সবচেয়ে শক্তিশালী এজেন্ট। আমাদের মধ্যে এখনো অনেক আছে, যাদের এ সমস্যাটি স্বীকার করতে হবে। ইমাজেন ভেঞ্চার্স ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ বুট ক্যাম্প এ যুবকদের নিজেদের হাতে বিষয়গুলি নেয়ার জন্য একটি দুর্দান্ত সুযোগ দিয়েছে৷ তদুপরি, আমি বিশ্বাস করি, বাংলাদেশ ইয়ুথ অ্যাকশন টিম (বিওয়াইএটি) সদস্যরা হল ভবিষ্যত পরিবর্তনকারী এবং তারা এমন একটি পথ তৈরি করবে, যা হাজার হাজার মানুষের জন্য একটি মাইলফলক হবে।’

Facebook Comments Box