মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পের শ্রমিকদের ট্রেড ইউনিয়ন গঠনে নানা প্রতিবন্ধকতা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশ : সোমবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৭৯ Time View

চট্টগ্রাম: জাহাজ-ভাঙ্গা শিল্পকে শ্রমিক-বান্ধব, নিরাপদ ও টেকসই শিল্প হিসেবে গড়ে তুলতে সংবিধানের ৩৮ অনুচ্ছেদ এবং আইএলও কনভেনশন ৮৭ ও ৯৮ অনুসরণ করে শ্রমিকদের অবাধ ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজ (বিলস) ও জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন ফোরামের নেতৃবৃন্দ এসব দাবি জানান।

সোমবার (৪ জানুয়ারি) বিকালে চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের পরিচালক নাসির উদ্দিনের সাথে মত বিনিময়কালে এসব দাবি জানানো হয়।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম দপ্তরে এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন ফোরামের আহ্বায়ক তপন দত্ত, বিলস-এলআরএসসি সেন্টার কোর্ডিনেশন কমিটির চেয়ারম্যান এএম নাজিম উদ্দিন, জাহাজ-ভাঙ্গা শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন ফোরামের কোষাধ্যক্ষ রিজোয়ানুর রহমান খান, ফজলুল কবির মিন্টু এবং জাহেদ উদ্দিন শাহিন।

এ সময় শ্রমিক নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় কতৃক ২০১৮ সালের ২৪ জুন জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে অন্য সব সেক্টরের ট্রেড ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন ক্ষমতা চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম দপ্তরে অর্পিত হলেও জাহাজ ভাঙ্গা পুনঃ প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প সমূহের ট্রেড ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন ক্ষমতা বিভাগীয় শ্রম দপ্তরে অর্পিত হয়নি। ফলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের মাধ্যমে জাহাজ-ভাঙ্গা শিল্পের শ্রমিকদের জন্য ট্রেড ইউনিয়ন গঠন ও রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম সম্পাদন করার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছে। এ অবস্থায় ওই প্রজ্ঞাপন সংশোধন করে জাহাজ ভাঙ্গা পুনঃ প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পসমূহের ট্রেড ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন ক্ষমতা আগের মত বিভাগীয় শ্রম দপ্তরে অর্পণ করে রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত প্রতিবন্ধকতা দূর করার উদ্যোগ নিতে হবে।’

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ‘শ্রম আইনের ১৮৩ (২) বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠান পূঞ্জ বলতে কোন নির্ধারিত এলাকায় একই প্রকারের নির্ধারিত শিল্পে ২০ জনের কম শ্রমিক নিযুক্ত রয়েছেন এমন প্রতিষ্ঠানকে বুঝাবে। অথচ শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডগুলোতে ৩-৪ শতাধিক শ্রমিক নিযুক্ত থাকলেও শ্রম আইনের ধারা ১৮৩ (৩) এর ‘থ’ উপধারায় প্রতিষ্ঠান পুঞ্জের তালিকায় জাহাজ পুনঃ প্রক্রিয়াজাতকরণ সেক্টরকে অন্তর্ভূক্ত করার কারণে ইয়ার্ড ভিত্তিক রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।’

নেতৃবৃন্দ শ্রম আইন সংশোধন করে জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে ইয়ার্ড এবং প্রতিষ্ঠান কুঞ্জ ভিত্তিক রজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া চালু রাখার আহ্বান জানান।

এছাড়াও নেতৃবৃন্দ জাহাজ-ভাঙ্গা শিল্পের শ্রমিকদের সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি কার্যকর করা, নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র, সার্ভিস বুক ও সবেতন ছুটি প্রদান, মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ, দুর্ঘটনায় আহতদের চিকিৎসা, পেশাগত রোগে আক্রান্তদের ক্ষতিপূরণ ও চিকিৎসা নিশ্চিতের দাবি জানান।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম পরিচালক নাসির উদ্দিন এসব দাবি বাস্তবায়নে তার দপ্তরের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দেন।

খবর বিজ্ঞপ্তির

Share This Post

আরও পড়ুন