সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন

জনতা ব্যাংককে ঘুরে দাাঁড়াতে হলে খেলাপী ঋণের লাগাম টানতে হবে

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : সোমবার, ২২ মার্চ, ২০২১
  • ৬৮ Time View

ঢাকা: জনতা ব্যাংক লিমিটেডের প্রধান কার্যালয় ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে মুজিব কর্নার উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার (২১ মার্চ) রাজধানীর মতিঝিলে ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয়ের ১২তলায় স্থাপিত মুজিব কর্নার অনলাইনে ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন অর্থ মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

এ সময় তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে ‘মুজিব কর্নার’ স্থাপন করেছে জনতা ব্যাংক। এটা জাতির পিতার প্রতি আমাদের সম্মান। জাতির পিতা আমাদের সবার ভাল কাজের অনুপ্রেরণা। তিনি আমাদের পথ দেখিয়ে যাচ্ছেন। তিনি আমাদের উৎসাহিত করছেন। এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্ম তারই দেখানো পথ অনুসরণ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আগামী প্রজন্মের সাথে সেত বন্ধন রচনা করবে এ মুজিব কর্ণার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ফজলে কবির বলেন, ‘জনতা ব্যাংকের আমানত ও তারল্য শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। এটা আশার কথা। তবে জনতা ব্যাংককে ঘুরে দাাঁড়াতে হলে খেলাপী ঋণের লাগাম টেনে ধরতে হবে। ঋণ আদায়ে আরো কঠোর শ্রম দিতে হবে। তাহলে সম্পদের গুণগত মান বৃদ্ধি পাবে। মূলধন পর্যাপ্ততায়ও ইতবাচক প্রভাব ফেলবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর কর্মসূচি হিসেবে মুজিব কর্নার নির্মাণ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীলগ্নে এর উদ্বোধন একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ।’

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, ‘জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে জনতা ব্যাংক দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখতে প্রতিনিয়ত গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করছে।’

জনতা ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ড. এসএম মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘আগামী মাস থেকে ব্যাংক ভবনের লবিতে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল স্থাপনের কাজ শুরু হবে। ব্যাংকের প্রবেশ পথে একটি স্নিগ্ধ পরিবেশে সবাই প্রামান্য চিত্র দেখতে পাবেন।’

স্বাগত বক্তব্যে জনতা ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আব্দুছ ছালাম আজাদ বলেন, ‘স্বাধীনতা উত্তর কালে জাতির পিতা ইউনাইটেড ব্যাংকে নিজের ব্যাংক একাউন্ট পরিচালনা করতেন। তারই হাতে নামকরণ করা জনতা ব্যাংক ইউনাইটেড ব্যাংকেরই উত্তরাধিকার। এ উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া বঙ্গবন্ধুর ব্যাংক হিসাব আমাদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের।’

অনুষ্ঠানে জনতা ব্যাংকের পরিচালক অজিত কুমার পাল, মেশকাত আহমেদ চৌধুরী, কেএম সামছুল আলম, জিয়াউদ্দিন আহমেদ ও হেলাল উদ্দিন, সোনালী ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. আতাউর রহমান প্রধান, অগ্রণী ব্যাংকের এমডি অ্যান্ড সিইও মো. শামস-উল ইসলাম, কৃষি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আলী হোসাইন প্রধানিয়া, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের এমডি কাজী আলমগীর, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের এমডি মো. ইসমাইল হোসেন, কর্মসংস্থান ব্যাংকের এমডি মো. তাজুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

প্রেস বার্তা

Share This Post

আরও পড়ুন