শিরোনাম
নিংশ্বাসের বন্ধু’র প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন চট্টগ্রামে ১৬-১৭ জুন থিয়েটার থেরাপি প্রয়োগ বিষয়ক রিফ্রেশার্স ট্রেনিং চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে জরুরী রোগী ব্যবস্থাপনার দুই দিনের প্রশিক্ষণ শুরু চা শ্রমিক নেতা বাবুল বিশ্বাসের মৃত্যুতে চা শ্রমিক নেতাদের শোক প্রকাশ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উপর ভ্যাট চায় না চট্টগ্রাম সিটি ছাত্রদল বিডার কাছে ব্যবসায় সহজীকরণের উদ্যোগ চায় বিজিএমইএ মিরসরাই বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরে বেপজার প্লট পেল বঙ্গ প্লাস্টিকসহ দেশি বিদেশি দশ প্রতিষ্ঠান ভারতীয় ভেরিয়েন্ট দেশে ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে কাউন্সিলর শহিদুল আলম টেকনাফে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ৮০০ পিস আন্দামান গোল্ড বিয়ার জব্দ
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১২:১৬ অপরাহ্ন

চসিক ও চবি চালু করতে পারে এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপির ডিপ্লোমা ও উচ্চতর ডিগ্রী

মোস্তফা কামাল যাত্রা / ১৬৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১
মোস্তফা কামাল যাত্রা

মোস্তফা কামাল যাত্রা: গ্রুপ সাইকোথেরাপির প্রয়োগ প্রক্রিয়ায় শিল্পকলার বৈচিত্রময় ব্যবহারের ধারণাকে কেন্দ্র করে বিগত এক শতাব্দি ধরে বিশ্বব্যাপি চর্চিত সৃজনশীল অভিব্যক্তিমূলক মনোবিশ্লেষক কলাবিদ্যা তথা ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র অনুশীলন বর্তমানে মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিজ্ঞানে অপ্রতিদ্বন্ধী প্রসঙ্গ।

গত ১২ মার্চ থেকে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (সিবিআইইউ) ইংরেজী বিভাগের আওতায় ইউনাইট থিয়েটার ফর সোস্যাল অ্যাকশন (উৎস) শুরু করেছে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক ত্রৈমাসিক সার্টিফিকেট কোর্স।

‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠের জন্য পাঠ্যক্রম প্রনয়ন এবং সংশ্লিষ্ট বিদ্যাপিঠে তা পাঠ্যক্রম ভূক্ত করতে উৎস অধিপরামর্শের সাথে সাথে দেশে মনোস্বাস্থ্য সেবার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও কুসংস্কার দূর করতে নিয়মিত নাট্য প্রদর্শনী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় টক শো, সোশ্যাল মিডিয়ায় অনলাইন সংলাপ, সেমিনার, সেম্পোজিয়াম, প্রশিক্ষণ আয়োজনের পাশাপাশি ভুক্তভোগীদের জন সংগঠন গড়ে তোলার জন্য কাজ করে যাচ্ছে উৎস।

অপর দিকে, মনোসাস্থ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক কর্যক্রমের অংশ হিসাবে ভুক্তভোগীদের জন্য সংগঠন গড়ে তোলা, তাদের নেতৃত্বের বিকাশ এবং মনোস্বাস্থ্য বিষয়ক দেশীয় আইন ও নীতিমালাকে অধিকারধর্মী করে প্রনয়নের জন্য ‘মেন্টাল হেলথ এডভোকেসী এসোসিয়েশন (মা) নামে একটি নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠা করে অধিপরামর্শমূলক কাজ করে যাচ্ছে উৎস।

‘মা’ পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র প্রাসঙ্গিক সৃজনশীল মনোবিশ্লেষক কলাবিদ্যাগুলোর একক ও সমন্বিত পাঠ্যক্রম চালুর জন্য দুতিয়ালীর পাশাপাশি মনোস্বাস্থ্য সুরক্ষায় গণ প্রয়োগ নিশ্চিত করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং চট্টগ্রাম সিটি কপোরেশনের (চসিক) জেনারেল হাসপাতালে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা কর্ণার প্রতিষ্ঠায় অধিপরামর্শ করছে।

চসিক স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে দেশের একটি মডেল প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। নগরবাসীর স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের জন্য চসিকের রয়েছে প্রয়োজনীয় কাঠামো ও অবকাঠামো। স্বাস্থ্য খাতে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে চসিক পরিচালনা করছে একটি বিশেষায়িত কলেজ। ‘ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজী’ নামের এ কলেজ থেকে স্বাস্থ্য সেবার জন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে পরিচালিত হচ্ছে বিষয় ভিত্তিক কোর্স ও প্রশিক্ষণ।

মনোসাস্থ্য সেবা কর্মীর চাহিদা বিবেচনায় বিশেষ করে চসিক পরিচালিত এ কলেজের মাধ্যমে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে চালু করা যেতে পারে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক ডিপ্লোমা ডিগ্রী।

চসিক যদি উল্লেখিত কলেজের মাধ্যমে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠ এবং পরিচালিত সমন্বিত স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র মেমোন জেনারেল হাসপাতাল কেন্দ্রীক মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের উদ্যোগ নেয় তবে তা মানসিক স্বাস্থ্য খাতে দক্ষ জনবল গড়ে তোলার পাশাপাশি ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপির’ গণ প্রয়োগ নিশ্চিত করতে পারবে বলে আমি দৃঢ় ভাবে বিশ্বাস করি। যা একটি ঐতিহাসিক ও সময় উপযোগী জনবান্ধব মনোস্বাস্থ্য প্রচেষ্টা হিসাবে স্বীকৃতি পাবে।

অন্য দিকে, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) চালু করতে পারে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক উচ্চতর বিদ্যায়তনীক পাঠ নিশ্চিত করতে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী।

প্রাথমিকভাবে চবির মনোবিজ্ঞান বিভাগ চালু করতে পারে সাইকোড্রামা, নাট্যকলা বিভাগ চালু করতে পারে সোসিওড্রামা, ড্রামা থেরাপি, থিয়েটার থেরাপি; মিউজিক বিভাগ চালু করতে পারে মিউজিক থেরাপি এবং চারুকলা ইনস্টিটিউট চালু করতে পারে আর্ট থেরাপি বিষয়ক সংশ্লিষ্ট পাঠ্যক্রম।

যা পর্যায়ক্রমে রূপ নিতে সক্ষম হবে চবি সেন্টার ফর ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বা একটি স্বতন্ত্র ইনস্টিটিউট অব ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’।

চবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে মনোযোগ আকর্ষণ করছি।

করোনা পরিস্থিতির কারণে সৃষ্ট মনোস্বাস্থ্য বিপর্যয় চিত্র পর্যালোচনা এবং মানুষের মধ্যে সৃষ্ট হতাশা, বিষন্নতা, আত্মহনন আর আত্মহত্যার পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে নাগরিক স্বার্থে দ্রুততম সময়ের মধ্যে চসিক এবং চবি কর্তৃপক্ষ দ্রুত ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠ ও প্রয়োগের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে মানবিক আচরণ করবেন বলে আমার বিনম্র প্রত্যাশা।

লেখক: চবির নাট্যকলা বিভাগের অতিথি শিক্ষক, সিবিআইইউর ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ কোর্সের সমন্বয়ক

add

আপনার মতামত লিখুন :

One response to “চসিক ও চবি চালু করতে পারে এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপির ডিপ্লোমা ও উচ্চতর ডিগ্রী”

  1. Mostafa+Kamal+Jatra says:

    UTSA, a Preface to Therapeutic Theatre in Bangladesh
    ———————————————————–
    A Unique Intervention in the field of Mental Health Issue
    ======================================
    As a pioneer organization, UTSA, one of the renowned NGOs in Bangladesh has initiated its intervention mainly for raising awareness about Mental Health issue through using Therapeutic Theatre tools as its organizational motto since 1997.

    UTSA began its journey by establishing area based and issue focused different Theatre Units to work on sustainable socio-economic and cultural development.

    UTSA believes that theatre is one of the most effective tools for communicating awareness raising programmes. The Theatre Units of UTSA already have organized more than five thousand issue-based theatre shows in different areas of Bangladesh. The theatre shows have incorporated different issues like Child Labour, Labour Rights, Child Rights, Disabled People’s Rights, Women’s Rights, Gender, Sexual Harassment, Child Trafficking, Early Child Care development, HIV/AIDS, Strengthening Local Government, Population Growth, Disaster Management, Leprosy, Environmental Preservation, Drug Addiction and Abuse of Acid.

    Besides theatre shows UTSA through its different Theatre Units and networks has implemented a number of theatre therapy based interventions, advocacy works and care giving services on different issues mainly focused on mental health issues, human rights and gender equity.

    UTSA can claim of having initiated to build up a strong networking through country wide either by patronizing or by having partnership with different institutions working for establishing human rights of PwDs, adolescents, oppressed women, victims of trafficking and other vulnerable community people. In the process of implementing the unique and imperative interventions UTSA has developed a number of Theatre Units and networks like TTCD, BTTI, CCBPC, BBL, KHRDI, RRTC, Dr. Jahangir Complex, ADF, CSD, AUDC etc. focused on a sustainable socio-economic and cultural development which ensures an inclusive democratic society free from all kinds of discriminations.

    Through incorporating Theatre for Development and Therapeutic Theatre as a part of clinical psychology, it is not only possible to ensure the effectiveness of any kind of psychosocial care based development issues but also to bring human resource development by initiating a process to safeguard an interpersonal empowerment.

    Physical development like financial development and sound infrastructural change is never to gain its sustainability without being reached to the acceptable level of people’s mentality that is formed by the socio-economic and cultural infrastructure. Actually the desired level exists within the sphere of the development of individual’s psychosocial aptitude. It is true for any type of socio-economic and cultural condition in the worldwide.

    Here comes a question of the most effective communicative tools that simply convert the development initiative to its all-time practice. Theatre especially the Therapeutic Theatre tools can play a vital role in this regard. Due to the unique properties of theatre, it can be used very successfully as a form of counseling. Generally, counseling is purely talk therapy consisting of thought-provoking conversations aimed at increasing the client’s self-awareness.

    However, just talking about thoughts and emotions might not always be enough. All those emotions we experience require a physical outlet which Theatre Therapy can provide. The key premise on which this therapy rests is that creative art is a force that has the power to heal.

    With the aim of developing the situation of Persons with Disability (PwD), underprivileged and different types of vulnerable people in Bangladesh, UTSA has introduced its social action related interventions through ‘Theatre Therapy’, ‘Psychodrama’, ‘Sociodrama’, ‘Playback Theatre’, ‘Living Newspaper Theatre’ and ‘Theatre for Development’. It is obvious that Theatre allows us the opportunity to experience the emotions like pain, anger, depression, anxiety and achieve catharsis for our own pent up emotions vicariously by watching the lives of the characters.

    In Bangladesh, as one of the very few institutions since its inception UTSA has been playing a vital role either by arranging or by participating in the therapeutic theatre based dramas, exhibitions, workshops, seminars, and festivals to improve the mental health of adolescents, underprivileged community people and PwDs.
    In addition to building therapeutic theatre units, other creative counseling and group psychotherapy tools UTSA with its two vital Theatre Units TTCD and BTTI has been organizing National Therapeutic Theatre Workshops (NTTW), conducted by international Theatre Therapists every year as one of its remarkable interventions aiming at developing expert Theatre Therapist resource persons since 2003.

    By the last 12 years more than 300 participants of different fields including persons with disabilities have received trainings under national and international scholars in the respective field.

    Particularly working experiences with the school going adolescents suffering from emotional disorders, PwDs, victims and survivors of natural disasters like SIDOR and AILA as well as man-made disasters like KDS Tragedy, Mirsarai Tragedy, Savar Tragedy to mitigate the challenges of PTSD are the remarkable additions of uplifting the confidence level of UTSA team members. The desired achievement is still far reaching as in Bangladesh there is no National Mental Health Act.

    Moreover, there are fund crisis, shortage of resources and efficient manpower. Still UTSA believes that through the advocacy programmes and care giving services the vision of establishing an inclusive democratic society of people living with dignity, freedom and safety will come true soon of course with all kinds of supports come from influential philanthropic organizations as well as individuals at home and abroad.
    ===========================================

    MOSTAFA KAMAL (JATRA), born on November 20, 1972, studied Dramatics at University of Chittagong, Bangladesh. He professionally engaged as Executive Director with multi-disciplinary theatre practitioner organization “UNITE THEATRE FOR SOCIAL ACTION (UTSA)” since 1997. UTSA was started its theatrical journey followed by ‘UNIT THEATRE CONCEPT’ instated of ‘GROUP THEATRE CONCEPT’ as alternative theater movement like ‘GRAM THEATRE’, MUKTHO NATOK’ ect.

    PEACE through THEATRE is the prime theme of UTSA. UTSA works through using theatre to ensure peace in earth. As theatre, make people happy by gathering information, developing their awareness on daily life issues and therapeutic aspects too. Mostafa Kamal Jatra believes that to ensured sustainable development of individual and society without side effect theatre can be a powerful tools. To know more see on this issue visit: https://www.facebook.com/pg/utsa1997/photos/?tab=album&album_id=717000011826866

    To develop expertise on use of Theatre in Therapeutic perspective UTSA every year organized ‘National Therapeutic Theatre Workshop (NTTW) conducted by international experts on same field since 2003. For details visit: https://www.facebook.com/groups/163617650644321/

    Therapeutic Theater focused works of UTSA with Persons with Disabilities(PwD’s) through its theatre unit ‘Theatre Therapy Centre of the Disabled (TTCD)’, works with natural and men made disaster affected people through its another theatre unit ‘Bangladesh Therapeutic Theatre Institutes (BTTI) was get worldwide reorganizations. BTTI also organize short and long course on ‘Theatre for Therapy’ to develop more Theatre Pathologists and Theatre Therapists in Bangladesh.

    Now a day’s UTSA implementing HEART & ERA project with adolescents, youth, women and Rohingya Refugee to develop their mental peace through using different forms of therapeutic theater techniques under supervision of Mostafa Kamal Jatra. To know more about UTSA use:
    https://www.youtube.com/watch?v=9M3dFbMzDu0&feature=share AND https://www.facebook.com/utsa1997/

    Mostafa Kamal Jatra started his theatre life with group theatre ‘MONCHO MUKUT’ in the year of 1988. Now he is representing group theatre ‘NATYADHAR’ at Chittagong. Last 30 years in his theatre life, he directed near about 100 stages & develops drama and conducted therapeutic theatre sessions.

    Mostafa Kamal Jatra joined in several healing arts & theatre focused seminars and conformance was hold at Afghanistan, Nepal, Sri Lanka, India, Thailand, Philippine, Australia and USA. Out of that, he is working as guest faculty in Department of Dramatics of University of Chittagong since 2015 and working as course coordinator on Expressive Psychotherapy running under Department of English of Cox’sBazar International University (CBIU), Bangladesh from 2021.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ