ঢাকারবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চসিক ও চবি চালু করতে পারে এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপির ডিপ্লোমা ও উচ্চতর ডিগ্রী

মোস্তফা কামাল যাত্রা
এপ্রিল ২৩, ২০২১ ৭:৪৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মোস্তফা কামাল যাত্রা: গ্রুপ সাইকোথেরাপির প্রয়োগ প্রক্রিয়ায় শিল্পকলার বৈচিত্রময় ব্যবহারের ধারণাকে কেন্দ্র করে বিগত এক শতাব্দি ধরে বিশ্বব্যাপি চর্চিত সৃজনশীল অভিব্যক্তিমূলক মনোবিশ্লেষক কলাবিদ্যা তথা ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র অনুশীলন বর্তমানে মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিজ্ঞানে অপ্রতিদ্বন্ধী প্রসঙ্গ।

গত ১২ মার্চ থেকে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (সিবিআইইউ) ইংরেজী বিভাগের আওতায় ইউনাইট থিয়েটার ফর সোস্যাল অ্যাকশন (উৎস) শুরু করেছে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক ত্রৈমাসিক সার্টিফিকেট কোর্স।

‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠের জন্য পাঠ্যক্রম প্রনয়ন এবং সংশ্লিষ্ট বিদ্যাপিঠে তা পাঠ্যক্রম ভূক্ত করতে উৎস অধিপরামর্শের সাথে সাথে দেশে মনোস্বাস্থ্য সেবার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও কুসংস্কার দূর করতে নিয়মিত নাট্য প্রদর্শনী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় টক শো, সোশ্যাল মিডিয়ায় অনলাইন সংলাপ, সেমিনার, সেম্পোজিয়াম, প্রশিক্ষণ আয়োজনের পাশাপাশি ভুক্তভোগীদের জন সংগঠন গড়ে তোলার জন্য কাজ করে যাচ্ছে উৎস।

অপর দিকে, মনোসাস্থ্য বিষয়ক জনসচেতনতামূলক কর্যক্রমের অংশ হিসাবে ভুক্তভোগীদের জন্য সংগঠন গড়ে তোলা, তাদের নেতৃত্বের বিকাশ এবং মনোস্বাস্থ্য বিষয়ক দেশীয় আইন ও নীতিমালাকে অধিকারধর্মী করে প্রনয়নের জন্য ‘মেন্টাল হেলথ এডভোকেসী এসোসিয়েশন (মা) নামে একটি নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠা করে অধিপরামর্শমূলক কাজ করে যাচ্ছে উৎস।

‘মা’ পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র প্রাসঙ্গিক সৃজনশীল মনোবিশ্লেষক কলাবিদ্যাগুলোর একক ও সমন্বিত পাঠ্যক্রম চালুর জন্য দুতিয়ালীর পাশাপাশি মনোস্বাস্থ্য সুরক্ষায় গণ প্রয়োগ নিশ্চিত করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং চট্টগ্রাম সিটি কপোরেশনের (চসিক) জেনারেল হাসপাতালে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা কর্ণার প্রতিষ্ঠায় অধিপরামর্শ করছে।

চসিক স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে দেশের একটি মডেল প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। নগরবাসীর স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের জন্য চসিকের রয়েছে প্রয়োজনীয় কাঠামো ও অবকাঠামো। স্বাস্থ্য খাতে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে চসিক পরিচালনা করছে একটি বিশেষায়িত কলেজ। ‘ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজী’ নামের এ কলেজ থেকে স্বাস্থ্য সেবার জন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে পরিচালিত হচ্ছে বিষয় ভিত্তিক কোর্স ও প্রশিক্ষণ।

মনোসাস্থ্য সেবা কর্মীর চাহিদা বিবেচনায় বিশেষ করে চসিক পরিচালিত এ কলেজের মাধ্যমে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে চালু করা যেতে পারে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক ডিপ্লোমা ডিগ্রী।

চসিক যদি উল্লেখিত কলেজের মাধ্যমে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠ এবং পরিচালিত সমন্বিত স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র মেমোন জেনারেল হাসপাতাল কেন্দ্রীক মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের উদ্যোগ নেয় তবে তা মানসিক স্বাস্থ্য খাতে দক্ষ জনবল গড়ে তোলার পাশাপাশি ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপির’ গণ প্রয়োগ নিশ্চিত করতে পারবে বলে আমি দৃঢ় ভাবে বিশ্বাস করি। যা একটি ঐতিহাসিক ও সময় উপযোগী জনবান্ধব মনোস্বাস্থ্য প্রচেষ্টা হিসাবে স্বীকৃতি পাবে।

অন্য দিকে, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) চালু করতে পারে ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বিষয়ক উচ্চতর বিদ্যায়তনীক পাঠ নিশ্চিত করতে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রী।

প্রাথমিকভাবে চবির মনোবিজ্ঞান বিভাগ চালু করতে পারে সাইকোড্রামা, নাট্যকলা বিভাগ চালু করতে পারে সোসিওড্রামা, ড্রামা থেরাপি, থিয়েটার থেরাপি; মিউজিক বিভাগ চালু করতে পারে মিউজিক থেরাপি এবং চারুকলা ইনস্টিটিউট চালু করতে পারে আর্ট থেরাপি বিষয়ক সংশ্লিষ্ট পাঠ্যক্রম।

যা পর্যায়ক্রমে রূপ নিতে সক্ষম হবে চবি সেন্টার ফর ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ বা একটি স্বতন্ত্র ইনস্টিটিউট অব ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’।

চবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতারসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে মনোযোগ আকর্ষণ করছি।

করোনা পরিস্থিতির কারণে সৃষ্ট মনোস্বাস্থ্য বিপর্যয় চিত্র পর্যালোচনা এবং মানুষের মধ্যে সৃষ্ট হতাশা, বিষন্নতা, আত্মহনন আর আত্মহত্যার পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে নাগরিক স্বার্থে দ্রুততম সময়ের মধ্যে চসিক এবং চবি কর্তৃপক্ষ দ্রুত ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’র বিদ্যায়তনিক পাঠ ও প্রয়োগের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে মানবিক আচরণ করবেন বলে আমার বিনম্র প্রত্যাশা।

লেখক: চবির নাট্যকলা বিভাগের অতিথি শিক্ষক, সিবিআইইউর ‘এক্সপ্রেসিভ সাইকোথেরাপি’ কোর্সের সমন্বয়ক

Facebook Comments Box