ঢাকাবুধবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চলতি অর্থ বছরে রেমিট্যান্স টার্গেট ২০ কোটি বিলিয়ন ইউএস ডলার, প্রবাসী এক কোটি ৩০ লাখ

admin
নভেম্বর ৫, ২০২০ ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : বর্তমানে এক কোটি ৩০ লাখ প্রবাসী রয়েছেন। প্রবাসীরা গত অর্থ বছরে ১৮ কোটি বিলিয়ন ইউএস ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। এ বছর ২০ কোটি বিলিয়ন ইউএস ডলার রেমিট্যান্সের টার্গেট রয়েছে। প্রবাসীরা বাংলাদেশের বেকাত্বের সমস্যা দূর করার পাশাপাশি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছেন।

অনিবাসী বাংলাদেশীদের সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধকরণ শীর্ষক এক সভায় চট্টগ্রাম জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার এ সব তথ্য জানিয়েছেন।

জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস চট্টগ্রাম এবং জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয় চট্টগ্রামের যৌথ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শাহানারা বেগম প্রধান অতিথি অতিথির বক্তব্যে বলেন, ‘প্রবাসীদের উপার্জনের টাকা জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরে বিনিয়োগ করতে পারেন। এতে প্রবাসী নিজেও লাভবান হবেন। অপর দিকে সরকারও লাভবান হবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘অনেক সময় প্রবাসীরা কষ্টার্জিত টাকা সঠিকভাবে বিনিয়োগ করতে পারেন না। সঠিক বিনিয়োগের মাধ্যমে নিজের এবং সরকারের লাভবান হওয়া সম্ভব।’

সভায় জানানো হয়, বৈধপথে বিদেশ গমনের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সঠিক পন্থা না জানার কারনেই অনেকে যাত্রপথে বিপদগ্রস্থ হয় এবং অভিবাসনের প্রক্রিয়াটি থাকে ত্রুটিপূর্ণ। এতে কর্মীর পাশাপাশি দেশও বঞ্চিত হয় মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন থেকে। সে লক্ষ্যে সরকার প্রবাসীদের বিদেশ গমনের পূর্বে তিন দিনের অরিয়েন্টেশন কর্মশালার আয়োজন করে থাকে।

‘চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমান বন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেক্স রয়েছে। দায়িত্বরত কর্মকর্তাগণ প্রবাসীদের পাঠানো অর্থের একটি অংশ সরকারের জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরে বিনিয়োগের পরামর্শ দিবেন। প্রবাসী কর্মীবান্ধব সরকার অভিবাসনে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকল্পে ১৬ টি অভিবাসনপ্রবণ দেশের সার্ভিজ চার্জ কমিয়ে বিদেশ গমোনেচ্ছুদের সাধ্যের মধ্যে রেখেছেন।

এ সভায় সঞ্চয় অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জাবেদ ইসলাম, সুদীপ্তা চৌধুরী, অপর্ণা সূত্রধর, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি দপ্তরের জনশক্তি জরিপ কর্মকর্তা আনার কলি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments Box