বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১০:১৮ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামে নব নিযুক্ত কাস্টমস বন্ড কমিশনারের সাথে বিজিএমইএ নেতাদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক / ১২৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

চট্টগ্রাম: বর্তমানে বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসজনিত উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে চরম বিপর্যয়ের মুখে বন্ধ হয়ে গেছে অনেক কারখানা, ক্রেতারা অর্ডার বাতিল/স্থগিত করেছেন। জাতীয় অর্থনীতিতে এর ব্যাপক নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ইতিমধ্যে দৃশ্যমান। পোশাক শিল্পের ভবিষ্যত সুরক্ষা ও শ্রমিকদের মজুরী প্রদানের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করায় পোশাক শিল্প বর্তমানে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। সময়োপযোগী ও দ্রুত সাহসী সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে পোশাক শিল্প পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা । এ প্রেক্ষিতে গত ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে রপ্তানীতে নেতিবাচক প্রবৃদ্ধি প্রায় ১৭ শতাংশ। চট্টগ্রামে বন্দর এবং কাস্টমস সুবিধায় তুলনামূলকভাবে খরচ কম হলেও অন্যান্য অবকাঠামোগত সমস্যার কারণে চট্টগ্রামের পোশাক শিল্প বর্তমানে খুবই নাজুক অবস্থায় রয়েছে। বর্তমানে মিরশরাই ও আনোয়ারায় অর্থনৈতিক অঞ্চল, কর্ণফুলি টানেলসহ বর্তমান সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডে ধারাবাহিকতায় বিদেশী বিনিয়োগসহ নতুন নতুন শিল্প কারখানা গড়ে উঠছে। এ ক্ষেত্রে কাস্টমস্ বন্ড কমিশনারেট কর্তৃক কার্যক্রম সহজীকরণ পূর্বক বিনিয়োগ ও রপ্তানী বৃদ্ধিকল্পে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) নব- নিযুক্ত কাস্টমস্ বন্ড কমিশনারেট চট্টগ্রামের কমিশনার একেএম মাহবুবুর রহমানের সাথে বিজিএমইএ এর নেতৃবৃন্দ সৌজন্য সাক্ষাতে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন বিজিএমইএ এর প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম।

কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট চট্টগ্রামের কমিশনার একেএম মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘জাতীয় অর্থনীতি ও আর্থসামাজিক উন্নয়নসহ ব্যাপক কর্মসংস্থানে পোশাক শিল্পের অবদান অনস্বীকার্য।’

তিনি দেশীয় শিল্প হিসাবে পোশাক শিল্পে বর্তমান মন্দাবস্থা উত্তরণে বন্ড কমিশনারেট ও বিজিএমইএ ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে এবং পোশাক শিল্পের বন্ড সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম সহজীকরণ পূর্বক দ্রুত অনুমোদন প্রদান করাসহ পারস্পরিক আলোচনা ও সহযোগিতার ভিত্তিতে বিরাজমান সমস্যাসমূহ দ্রুত সমাধান করা হবে বলে অভিমত দেন।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি এএম চৌধুরী সেলিম, পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ, মোহাম্মদ মুসা, এনামুল আজিজ চৌধুরী, প্রাক্তন পরিচালক ও কাস্টম বিষয়ক স্থায়ী কমিটি চেয়ারম্যান এমডিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী।

কাস্টমস বন্ড কমিশনারেটের অতিরিক্ত কমিশনার মাহফুজুল হক ভূঁইয়া ও সহকারী কমিশনার সন্তোষ সরেণ।

নিউজ রিলিজ

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ