বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

খাতুনগঞ্জে জলাবদ্ধতায় অর্থনৈতিক ক্ষতি নিরুপণের গবেষণা প্রতিবেদন ডিসেম্বরে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১৮ Time View

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম নগরের খাতুনগঞ্জ এলাকায় জলাবদ্ধতার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক ক্ষতি নিরুপণে পরিচালিত সমীক্ষার প্রাথমিক রিপোর্টের উপর স্টেকহোল্ডারদের মতামত নেয়ার লক্ষ্যে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইকনোমিক ইমপেক্ট অব ওয়াটারলগিং অন লোকাল ট্রেড: দ্যা কেইস স্ট্যাডি অব খাতুনগঞ্জ, হোলসেল কমোডিটি মার্কেট চট্টগ্রাম’ শীর্ষক ড্রাফট রিপোর্ট শেয়ারিং কর্মশালা রোববার (১৫ নভেম্বর) সকালে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়।

দি চি টাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশন এবং ইউএনডিপি’র যৌথ উদ্যোগে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি প্ল্যানিং কমিশন প্রোগ্রাম ডিভিশন’র চীফ খন্দকার আহসান হোসেন বলেন, ‘যে কোন সমস্যা সমাধানে গবেষণা ও সমীক্ষা পরিচালনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। খাতুনগঞ্জ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার কারণে যে অর্থনৈতিক ক্ষতি সাধিত হয়, তা নিরুপণের লক্ষ্যে এই রিসার্চ করা হয়। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরি করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর পেশ করা হবে।’

এতে চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘খাতুনগঞ্জে ২০০৪ সাল থেকে জলাবদ্ধতার কারণে দোকান ও গুদামের মালামাল নষ্ট হয়ে শত শত কোটি টাকা লোকসান হয়েছে।’

তিনি চাকতাই খালকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে জলাবদ্ধতা নিরসনে স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদী কার্যকরী পরিকল্পনা গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

মাহবুবুল আলম চাকতাই খালকে নৌ-চলাচলের উপযোগীকরণ, খালের মাটি দ্রুত উত্তোলন ও গভীরতা নিশ্চিত করা, খালের দুই পাড়ে রাস্তা ও ওয়াকওয়ে নির্মাণ এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহের মধ্যে সমন্বয় সাধনের অনুরোধ জানান।

কর্মশালায় স্টাডি রিপোর্ট উপস্থাপন করেন এনআরপি’র কনসালটেন্ট ড. রিয়াজ আক্তার মল্লিক, ড. নজরুল ইসলাম, ড. আবু তৈয়ব মো. শাহজাহান ও সুমাইয়া বিনতে মামুন।

জয়েন্ট চীফ ও প্রকল্প পরিচালক -এনআরপি ড. নুরুন নাহার জলাবদ্ধতাকে চট্টগ্রামের উন্নয়নের অন্যতম প্রধান প্রতিবন্ধকতা উল্লেখ করে পরিকল্পিত পরিকল্পনার মাধ্যমে এর সমাধান সম্ভব বলে তিনি মনে করেন।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি প্ল্যানিং কমিশন প্রোগ্রাম ডিভিশন’র চীফ (অতিরিক্ত সচিব) খন্দকার আহসান হোসেন, জয়েন্ট চীফ ও প্রকল্প পরিচালক-এনআরপি ড. নুরুন নাহার,

কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে বুয়েট’র ফ্যাকাল্টি অব আর্কিটেকচার এন্ড প্ল্যানিং’র ডীন প্রফেসর খন্দকার শাব্বির আহমেদ, চেম্বার পরিচালকদ্বয় মো. অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন) ও অঞ্জন শেখর দাশ, ইনস্টিটিউট অব আর্কিটেক্টস বাংলাদেশ, চট্টগ্রাম’র চ্যাপ্টার চেয়ারম্যান নাজমুল লতিফ, চসিকের চীফ সিটি প্ল্যানার আর্কিটেকচার একেএম রেজাউল করিম ও খাতুনগঞ্জ ট্রেড এসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল হোসেন বক্তব্য রাখেন।

Share This Post

আরও পড়ুন