বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১২:০০ অপরাহ্ন

ক্লাউড ইকোসিস্টেম উন্নয়নে ১ হাজার ৮৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে হুয়াওয়ে

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৫ Time View

ঢাকা: এ বছর হুয়াওয়ে ডেভেলপার প্রোগ্রাম ২.০ -এ প্রায় এক হাজার ৮৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ (আইসিটি) সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। হুয়াওয়ে ক্লাউড, কুনপেং ও অ্যাসেন্ডের মাধ্যমে শক্তিশালী ইকোসিস্টেম উন্নয়নে সহায়তা করবে হুয়াওয়ের এ বিনিয়োগ।

রোববার (২৫ এপ্রিল) চীনের শেনঝেনে ইউনিভার্সিটি টাউনে অনুষ্ঠিত ২০২১ হুয়াওয়ে ডেভেলপার কনফারেন্সে (এইচডিসি.ক্লাউড ২০২১) এ ঘোষণা দেয়া হয়। তিন দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন, টেকনিক্যাল সামিট, ট্রেনিং ক্যাম্প, কোড ল্যাব, ডেভেলপার কার্নিভাল এবং শিক্ষক, মেধাবী প্রযুক্তিবিদ ও হুয়াওয়ের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে বিভিন্ন ফোরাম অনুষ্ঠিত হবে। এ আয়োজনে আইসিটি শিল্প খাতের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা, শিক্ষক ও গবেষক এবং ডেভেলপার ইকোসিস্টেমের শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন এবং এআই, কম্পিউটিং ও ওপেন সোর্সের বর্তমান ট্রেন্ড নিয়ে আলোচনা করবেন।

হুয়াওয়ের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রিচার্ড ইউ এবং হুয়াওয়ে ক্লাউড বিইউ অ্যান্ড কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের সিইও’র মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে এ আয়োজন শুরু হয়।

তিনি বলেন, ‘২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বের শতভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্লাউড প্রযুক্তি ব্যবহার করবে। ক্লাউড আইসিটি শিল্পখাতের ভবিষ্যৎ এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর ডিজিটাল রূপান্তরের মূলভিত্তি। ডেভেলপাররা এ খাতের চালিকাশক্তি। হুয়াওয়ে এর প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন উন্মোচনে ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যাবে, পাশাপাশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্লাউড ও ইনটেলিজেন্ট রূপান্তর ত্বরাণ্বিত করতে ডেভেলপার ও অংশীদারদের সাথে কাজ করবে।’

হুয়াওয়ে ডেভেলপার কনফারেন্স (এইচডিসি.ক্লাউড) ২০২১-এ হুয়াওয়ে ছয়টি উদ্ভাবনী পণ্য ও সেবা উন্মোচন করে, যার মধ্যে রয়েছে হুয়াওয়ে ক্লাউড সিসিই টার্বো ক্লাউড কন্টেইনার ক্লাস্টার, ক্লাউডআইডিই ইন্টেলিজেন্ট প্রোগ্রামিং অ্যাসিসটেন্ট, গসডিবি (ওপেনগসের জন্য) ডাটাবেজ, ট্রাস্টেড ইন্টেলিজেন্ট কম্পিউটিং সার্ভিস (টিআইসিএস), পাংগু মডেল (বিশ্বের বৃহত্তম চীনা এনএলপি মডেল ও সিভি মডেল সহ) এবং ডাইভার্স কম্পিউটিংয়ের জন্য ইন্টেলিজেন্ট সফটওয়্যার। সঠিক কার্যকারিতা ও উচ্চমান নিশ্চিত করার মাধ্যমে ডেভেলপারদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে হুয়াওয়ের এ ছয়টি পণ্য।

এ কনফারেন্সের অধীনে পেকিং ইউনিভার্সিটি ও সিনঘুয়া ইউনিভার্সিটিসহ আরো বেশ কয়েকটি স্থানে মোবাইল এজ কম্পিউটিংয়ের মত সাম্প্রতিক আলোচিত বিষয়গুলো নিয়ে আটটি সামিট অনুষ্ঠিত হয়। স্বনামধন্য নানা প্রতিষ্ঠানের প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তাগণ ও সিনিয়ির আর্কিটেক্টদের অংশগ্রহণে ১৩টি গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে অংশগ্রহণকারীরা অ্যাপ্লিকেশন উন্নয়নে প্রযুক্তিগত ট্রেন্ডসহ এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন এবং নির্দিষ্ট মতে পৌঁছান। ডেভেলপার ও হুয়াওয়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে ৪৫টি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভাগুলোয় ডেভেলপারদের ক্যারিয়ারের বিকাশ ও সক্ষমতার উন্নয়ন নিয়ে পরামর্শ দেন হুয়াওয়ের কর্মকর্তাগণ। এছাড়াও, কনফারেন্সে আইসিটি সম্পর্কিত নানা বিষয়ে ৯০টি এক্সপার্ট লেকচার এবং ৩৩টি ডেভেলপার ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজ রিলিজ

Share This Post

আরও পড়ুন