বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন

ক্রেতাদেরকে অধিক সংখ্যক শিপিং লাইনার মনোনয়ন দেয়ার অনুরোধ বিজিএমইএর

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ৬ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৭ Time View

ঢাকা: পোশাক রপ্তানি কনটেইনার যথাসময়ের মধ্যে জাহাজীকরণের জন্য পোশাক শিল্পের ক্রেতাদেরকে অধিক সংখ্যক শিপিং লাইনার ও অফ-ডক মনোনয়ন দেয়ার জন্য অনুরোধ করেছে বিজিএমইএ।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) বিজিএমইএ অফিসে অনুষ্ঠিত ক্রেতা ও মেইনলাইন অপারেটর প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠকে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এ অনুরোধ জানান।

সভায় বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি মিরান আলী, পরিচালক আসিফ আশরাফ, মো. মহিউদ্দিন রুবেল, আবদুল্লাহ হিল রাকিব, সাবেক পরিচালক আশিকুর রহমান তুহিন, বিজিএমইএ এর পোর্ট অ্যান্ড শিপিং বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়াম্যান হাসান আব্দুল্লাহ, বিকেএমইএ এর পরিচালক ফজলে শামীম এহসান, এইচঅ্যান্ডএম এর রিজিওনাল কান্ট্রি ম্যানেজার জিয়াউর রহমান, মার্কস অ্যান্ড স্পেন্সারের কান্ট্রি ম্যানেজার স্বপ্না ভৌমিক ও শিপিং লাইন মার্কস্লাইনের কান্ট্রি হেড অংশুমান মিত্র মুস্তাফি উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ফারুক হাসান বলেন, ‘চট্রগ্রাম বন্দরে ক্রেতাদের পক্ষ থেকে শিপিং লাইনার ও অফ-ডক নির্ধারিত করে দেয়ার কারনে পোশাক শিল্পের রপ্তানি পণ্যবাহী কনটেইনারগুলোকে বন্দরে অতিরিক্ত ১০-১৫ দিন থাকতে হচ্ছে। এতে করে বন্দরে বনইেনার জট দেখা দিয়েছে। অনেক ক্রেতা বাংলাদেশ থেকে বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করলেও মাত্র একটি অথবা দুইটি শিপিং লাইন ও ফরওয়ার্ডারের মনোনয়ন দেয়। পাশাপাশি ক্রেতারা রপ্তানি পণ্যের জাহাজিকরণের জন্য ৪-৫টি অফ-ডক অনুমোদন দেয়। এতে করে জাহাজীকরণে দেরি হয়। ফলে রপ্তানি অর্থ প্রত্যাবাসিত হতে বিলম্বিত হয়, যার জন্য রপ্তানিকারকদেরকেও অতিরিক্ত চার্জ মাশুল দিতে হচ্ছে।’

বিজিএমইএ সভাপতি এ সমস্যা সমাধানের জন্য ক্রেতাদেরকে অধিক সংখ্যক শিপিং লাইনার ও অফ-ডক মনোনয়ন দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বিজিএমইএ চট্রগ্রাম বন্দরে সৃষ্ট রপ্তানি কনটেইনার জট নিরসনের জন্য এইচঅ্যান্ডএম, এমঅ্যান্ডএসসহ বায়ার্স ফোরামের মাধ্যমে পোশাক শিল্পের ক্রেতাদেরকে পত্র দিয়ে পরিস্থিতি জানিয়ে এ ব্যাপারে তাদের সহযোগিতা কামনা করেন।

Share This Post

আরও পড়ুন