বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৮:২৪ অপরাহ্ন

ক্যান্সার রোগীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার রাষ্ট্রকে অর্ধেক দিতে হবে

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : সোমবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৫৬ Time View

ফেনী: ২২তম বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে জাতীয় রোগী কল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ‘ক্যান্সার প্রতিরোধে সচেতনতা, আনবে সফলতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবার আয়োজন করে ফেনী জেলা কমিটি। সোসাইটির চেয়ারম্যান ডাক্তার মুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদের সভাপতিত্ব ও জেলা সদস্য আলমগীর হোসেনের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন এসএ টেলিভিশন চট্টগ্রাম ব্যুর‌ো প্রধান কাজী হুমায়ুন কবির।

অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ডিবিজি নিউজের ফেনী জেলা প্রতিনিধি আবু তাহের ভূঁইয়া, প্রধান বক্তা ছিলেন সোসাইটির জেলা উপদেষ্টা এনএন জীবন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক স্টার লাইনের সহযোগী সম্পাদক জসিম মাহমুদ, অজেয় বাংলার নির্বাহী সম্পাদক শাহ জালাল ভূইয়া, এসএ টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি মাইনুল ইসলাম রাসেল, ইনকিলাবের জেলা প্রতিনিধি ওমর ফারুক, সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সাইফুল ইসলাম চৌধুরী ।

উপস্থিত ছিলেন লালপোল সোলতানীয়া মাদ্রাসার নায়েবে মোহতামিম মূফতি সালমান বিন মনসুর, মির্জাপুর আজিজুল উলুম মাদ্রাসার মোহতামিম মাওলানা সাইফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ ইব্রাহীম রিয়াদসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

কাজী হুমায়ুন কবির বলেন, ‘জাতীয় রোগী কল্যাণ সোসাইটি সারা বাংলাদেশে রোগীদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে। স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে বাংলাদেশের প্রায় শতকরা জনগণ। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে হবে। পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হবে ও নৈতিক মূল্যবোধের চর্চা করতে হবে।’

মাহতাব হোসাইন মাজেদ বলেন, ‘ক্যান্সার রোগ অত্যন্ত ব্যয়বহুল, যার ফলে একটি পরিবারকে নিঃস্ব হয়ে যেতে হয়। চিকিৎসা সেবা পাওয়া রাষ্ট্রের জনগণের মৌলিক অধিকার। তাই আমরা ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীদেরকে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে অর্ধেক ব্যয়ভার বহনের দাবি জানাচ্ছি। সঠিক চিকিৎসা ব্যবস্থা সম্প্রসারণে আরো বেশি গবেষণার প্রয়োজন। প্রতি দিন প্রায় ৩৫০ রোগী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করছে। নারীদের ব্রেস্ট ক্যান্সার এখন মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। ক্যান্সার রোগ কেন হয়- এ বিষয়ে জনসচেতনতা প্রয়োজন।’

বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে ২০ জন রোগীকে সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত চিকিৎসা দেয়ার ঘোষনা দেন মাহতাব হোসাইন মাজেদ। প্রাথমিকভাবে অর্ধ শতাধিক রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়া হয়।

সিএন/এমএ

Share This Post

আরও পড়ুন