শিরোনাম
পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডে উন্নয়ন কাজ পরিদর্শনে কাউন্সিলর শহিদুল আলম টেকনাফে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ৮০০ পিস আন্দামান গোল্ড বিয়ার জব্দ প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা তহবিলে এক কোটি টাকা অনুদান দিল চট্টগ্রাম চেম্বার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেনের ছুটি বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম’র আইটি বিশেষজ্ঞ গ্রেফতার চট্টগ্রামে সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে দুই মাসব্যাপী আন্তঃবিভাগ বির্তক প্রতিযোগিতা শুরু নাভানাসহ সীতাকুণ্ডের সব কারখানায় ঈদুল আজহার আগে শ্রমিকদের বেতন-বোনাস দাবি পরিবেশ বিষয়ক গল্প : মন পড়ে রয় । নাজিম হোসেন শেখ পিএইচপি অটো মোবাইলসের তৈরি অ্যাম্বুলেন্স উপহার পেল চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল সোতোকান কারাতে স্কুল চট্টগ্রামের কারাতে বেল্ট প্রতিযোগিতা সম্পন্ন
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৫:২১ অপরাহ্ন

কৃষি যন্ত্র ঘোষণায় আমদানিকৃত ঢাকার সালেহা ট্রেডিংয়ের ৫০ টন প্রসাধনী সামগ্রী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৬৫৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০

চট্টগ্রাম: মিথ্যা ঘোষণায় আনা উচ্চ শুল্ক হারের ৫০ টন প্রসাধনী সামগ্রীর চালান আটক করেছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস।

কৃষি যন্ত্রের লাঙ্গল ঘোষণায় এ সব প্রসাধনী সামগ্রী আমদানি করেছিল ঢাকার মেসার্স সালেহা ট্রেডিং।

এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি প্রায় আড়াই কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকির চেষ্টা করেছিল বলে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, ঢাকার চকবাজারের আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স সালেহা ট্রেডিং বিএল নম্বর ৩৪১১১৯০০০০০১০ এর মাধ্যমে সিঙ্গাপুর থেকে পাওয়ার টিলারের লাঙ্গল ঘোষণায় তিন কন্টেইনার পণ্য আমদানি করে, যার ঘোষিত পরিমাণ ৩০ হাজার কেজি। পণ্যচালান সংশ্লিষ্ট কন্টেইনারগুলো এমবি এক্স প্রেস কাবরু জাহাজে করে গত ১১ জানুয়ারি চট্টগ্রাম বন্দরে আসলেও আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান পণ্য খালাসের লক্ষ্যে কোন কার্যক্রম গ্রহণ করেন নি।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে দীর্ঘ দিন সুযোগের অপেক্ষায় থাকা এ কন্টেইনারগুলোর কায়িক পরীক্ষার উদ্যোগ নেয় চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের অডিট, ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ (এআইআর) শাখা। বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) বিকালে কায়িক পরীক্ষায় লাঙ্গলের পরিবর্তে প্রায় ৫০ মেট্রিক টন শর্ত সাপেক্ষে আমদানিযোগ্য প্রসাধন সামগ্রী (বিভিন্ন ব্রান্ডের সাবান, শ্যাম্পু, বিউটি ক্রিম, শ্যাভিং ক্রিম) পাওয়া যায়। এর মধ্যে রয়েছে জনসন, সানসিল্ক ও ডাব শ্যাম্পু, পালমোলিভ সোপ অ্যান্ড শোওয়ার জেল, ডাব সোপ, ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী ক্রিম এবং জিলেট শেভিং ক্রিম।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের এআইআর শাখার সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম জানান, পণ্য চালানটিতে প্রায় আড়াই কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকির অপচেষ্টা ছিল, যা চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের তৎপরতা ও কঠোর নজরদারির কারণে প্রতিহত করা সম্ভব হয়েছে। মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানির বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া পণ্য চালানটিতে অর্থ পাচারের ঘটনা ঘটেছে কিনা তা অনুসন্ধান করবে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের এন্টি মানি লন্ডারিং ইউনিট।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ