বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন

করোনা প্রতিরোধে গণপরিবহন শ্রমিকদের সাথে মত বিনিময় সভা করল উৎস

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ আগস্ট, ২০২১
  • ১৪২ Time View

চট্টগ্রাম: করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ‘সাপোর্টিং এঙ্গেজমেন্ট অফ দা সিভিল সোসাইটি ফর কোভিড-১৯ রেসপন্স এক্টিভিটিস’ প্রকল্পের আওতায় গণপরিবহন শ্রমিকদের সাথে মত বিনিময় সভা করেছে ইউনাইট থিয়েটার ফর সোশাল অ্যাকশন (উৎস)।

এসোসিয়েশন অব ডেভেলাপমেন্ট এজেন্সিজ ইন বাংলাদেশের (এডাব) সহায়তায় বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর অলংকার বাস স্ট্যান্ডের তিসা পরিবহন কাউন্টারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এডাবের পক্ষ থেকে উপস্থিত সবার মাঝে মাস্ক এবং স্বাস্থ্য সচেতনতা বার্তা সম্বলিত স্টিকার গণপরিবহনে লাগানোর জন্য বিতরণ করা হয়।

উৎসের কোভিড রেসপন্স প্রোগ্রামের ফোকাল পার্সন মো. আবুল হাসেম খানের সঞ্চালনায় পরিচালিত এবং উৎসের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মোহাম্মদ শাহ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ‘সাপোর্টিং এঙ্গেজমেন্ট অফ দা সিভিল সোসাইটি ফর কোভিড -১৯ রেসপন্স এক্টিভিটিস’ প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার আছিয়া আফরিন।

অতিথি ছিলেন তিসা পরিবহনের জিএম ওহিদুর রহমান, এজিএম সাইফুল ইসলাম বুলু, স্বাধীন বাংলা পরিবহনের ম্যানেজার মো. হারুন।

বক্তব্য রাখেন এডাব চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রকল্প কর্মকর্তা মো. ফোরকান, প্রকল্পের ভলান্টিয়ার মো. জসিম উদ্দিন, মো. সুলতান, সিএনজি শ্রমিক নেতা মোহাম্মদ নাসির।

সভায় বক্তারা বলেন, ‘করোনা মহামারী প্রতিরোধে জনসচেতনতার বিকল্প নাই।’ সাথে সাথে মাস্ক ব্যবহার করা, বার বার সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং করোনা ভ্যাক্সিন গ্রহণ করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। অসচেতন জনসাধানরকে সচেতন করে গড়ে তোলার জন্য উপস্থিত সকলের প্রতি বিশেষভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করার আহ্বান জানান। ভারতসহ বিভিন্ন দেশের করোনা মহামারীতে মানুষের মৃত্যুর ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরে আলোচনা করেন এবং আমাদের দেশে সচেতনতার মাধ্যমে করোনা মহামারী প্রতিরোধের প্রত্যয় ঘোষণা করেন। পরিবহন সেক্টর এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে বক্তারা আশা প্রকাশ করেন।

প্রকল্প কার্যক্রমের আওতায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সংরক্ষিত আসন- ৪ (সাধারণ ৯, ১০ এবং ১৩ নম্বর ওয়ার্ড) এর মসজিদের খতিবদের মাধ্যমে জুম্মার নামাজের সময় সচেতনতামুলক বক্তব্য প্রদান, এলাকায় সচেতনতামুলক মাইকিং, পোস্টার, লিফলেট, স্টিকার, ফেস্টুনের মাধ্যমে প্রচার কার্যক্রম অব্যাহত রাখা ও জোরদার করার পরিকল্পনা গৃহীত হয়।

প্রেস বার্তা

Share This Post

আরও পড়ুন