বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১০:০৮ অপরাহ্ন

করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ না দেয়া পর্যন্ত কেউ নিরাপদ নয়

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক / ৩২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ মার্চ, ২০২১

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাক্তার হাসান শাহরিয়ার কবীর বলেছেন, করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকে জীবনবাজি রেখে কাজ করতে গিয়ে তিনি আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন মো. রফিকুল ইসলাম। সরকারের একজন সৎ আদর্শবান গাড়ি চালক হিসেবে তার পরিচিতি ছিল। মানব সেবা ও মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত ছিলেন তিনি।

শুক্রবার (১৯ মার্চ) সন্ধ্যায় নগরীর লয়েল রোডের সিনেমা প্যালেস সংলগ্ন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সরকারী গাড়ি চালক সমিতি চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সমাজকল্যাণ সম্পাদক করোনা যোদ্ধা মো. রফিকুল ইসলামের স্মরণ সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাসান শাহরিয়ার কবীর আরো বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসক-কর্মচারীসহ সরকারী-বেসরকারী পর্যায়ের অনেকে মৃত্যুবরণ করেছে। জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ভূমিকার কারণে বর্তমানে বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ না দেয়া পর্যন্ত কেউ নিরাপদ নয়। আমরা সকলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চললে করোনাকে ভয় নয়, জয় করতে পারবো।’

সভার শুরুতে মহান স্বাধীনতা দিবসকে স্বাগত জানিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে জীবন উৎস্বর্গকারী সব বীর শহীদ, তাদের পরিবার বর্গের সদস্য ও করোনাযোদ্ধা রফিকুল ইসলামের আত্মার শান্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

মাহফিলে মুনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মো. ছাদেকুর রহমান।

সংগঠনের সভাপতি আবদুল আউয়াল সরকারের সভাপতিত্বে ও সহ-সম্পাদক মো. ইয়াছিন আরাফাত বিটুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ও আন্দরকিল্লা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার সেখ ফজলে রাব্বি।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন সরকারী গাড়ি চালক সমিতি চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. এনামুল হক ফারুক।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন হাটহাজারী উপজেলা ভেটেরিনারী সার্জন ডাক্তার আবদুল্লাহ আল মাসুদ, চতুর্থ শ্রেণি সরকারী কর্মচারী সমিতির চট্টগ্রাম বিভাগীয়-জেলা কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন মানিক ও সাধারণ সম্পাদক শামসুল ইসলাম।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কর্মকর্তা আবদুল মমিন, মো. আব্দুল মান্নান, আবদুল গফুর, আবু বক্কর ছিদ্দিক, মো. সুমন, মুক্তার আলী, খোরশেদ আলম, ভূষণ কুমার বড়ুয়া, কবির আহমেদ, শরীফুল ইসলাম, আইনুল হক, সুবল দাশ, পারভীন আক্তার, ফখরুল ইসলাম বাবর, চতুর্থ শ্রেণি সরকারী কর্মচারী সমিতির (চমেকহা) সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আবদুস সাত্তার ও দপ্তর সম্পাদক মো. ইব্রাহিম।

সভা শেষে করোনা যোদ্ধা মো. রফিকুল ইসলামের স্ত্রী ও পুত্রের হাতে একটি শোক ক্রেস্ট তুলে দেন ডাক্তার হাসান শাহরিয়ার কবীর।

প্রেস বার্তা

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ