ঢাকাসোমবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

করোনাকালীন প্রণোদনা চায় চট্টগ্রাম আবাসিক হোটেল মালিক সমিতি

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
মে ৪, ২০২১ ৬:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চট্টগ্রাম: করোনাকালীন সরকারিভাবে প্রণোদনা দাবি করেছেন চট্টগ্রাম আবাসিক হোটেল মালিক সমিতি।

মঙ্গলবার (৪ মে) গণ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি করা হয়।

বিবৃতি দাতারা হলেন সংগঠনের সভাপতি সাবেক কমিশনার হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিকী, সহ সভাপতি মো. ইব্রাহীম, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, লায়ন নুরুল কবির, যুগ্ম সম্পাদক লায়ন এম শফিউল আলম, অর্থ সম্পাদক মাওলানা আ ন ম আবদুশ শাকুর, মো. শফিকুল ইসলাম।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‌চট্টগ্রাম শহরে ৩৫০টিরও বেশি আবাসিক হোটেলে ৩৫ হাজার কর্মচারী কর্মরত আছেন। করোনাকালীন সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী গত ৫ এপ্রিল থেকে বিধি নিষেধের কারনে আবাসিক হোটেলগুলো বন্ধ থাকা সত্বেও সরকারি ভ্যাট, সিটি কর্পোরেশন ট্যাক্স, ওয়াসা, গ্যাস, বিদ্যুৎ বিল, ইনকাম ট্যাক্স, কর্মচারীদের বেতনসহ অন্য সরকারি ফি দিতে হচ্ছে। গত বছরও প্রায় তিন মাস বন্ধ থাকার পরও আমরা সব প্রকার সরকারি ফি প্রদান করেছি। কোথাও কোন সংস্থা আমাদের এক টাকাও মওকুফ করেনি। দু:খের সাথে জানাচ্ছি, সরকারিভাবে কোন সাহায্য সহযোগিতা প্রণোদনা পাইনি। এছাড়াও চট্টগ্রামের আবাসিক হোটেলগুলোতে ডাক্তার, নার্স ও বিদেশগামী ব্যক্তিসহ সরকারি লোকজন কোয়ারেন্টিনে ছিল, সে বিলগুলোও আমরা পাইনি। তার উপর ব্যাংকের ঋণের সুদও মওকুফ করা হয়নি। এ অবস্থায় বছর ঘুরতে না ঘুরতে এক বছরের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে এখনও পারিনি। ঠিক সে মূহুর্তে আবারও করোনার থাবায় আমরা বিপর্যস্ত। আমাদের পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে। পরিবার-পরিজন নিয়ে এ খাতের লোকজন মানবেতর জীবন যাপন করছে। আবাসিক হোটেলগুলো বন্ধ থাকলেও সব ধরনের খরচ অব্যাহত রয়েছে।’

বিবৃতিতে পর্যটন ও বিনোদনের ক্ষেত্রে অনন্য অবদান রাখার প্রত্যয়ে চট্টগ্রাম আবাসিক হোটেল খাতকে সচল রাখতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ও চট্টগ্রাম সিটি মেয়রের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আহ্বান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ। সেই সাথে প্রণোদনার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে সুবিবেচনা করার জন্য চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

প্রেস বার্তা

Facebook Comments Box