মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন

কমিউনিটি পুলিশিংয়ের উদ্যোগে সিএমপি উত্তর বিভাগে ফ্রি পরিবহন সেবা চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
  • ২৮ Time View

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) ও কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি চট্টগ্রাম মহানগরের যৌথ উদ্যোগে বিনামূল্যে রোগীদের জন্য পরিবহন সেবা চালু করা হয়েছে। সিএমপির উত্তর বিভাগে এসব অ্যাম্বুলেন্স, মাইক্রো ও সিএনজি ২৪ ঘণ্টা সেবা দেবে।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. মোখলেছুর রহমান এ সার্ভিসের উদ্বোধন করেন।

ফ্রী রোগী পরিবহন সার্ভিসে একটি অ্যাম্বুলেন্স, একটি মাইক্রোবাস ও ১৮টি সিএনজি সম্পূর্ণ বিনামূলে রোগী পরিবহন করবে। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি থানায় এ কার্যক্রম চালু করা হবে বলে জানা গেছে।

বিধি-নিষেধ চলাকালীন সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা এ সেবা চালু থাকবে। জরুরী রোগী পরিবহনে গাড়ী/অ্যাম্বুলেন্সের সংকট থাকলে সিএমপির উত্তর বিভাগের চারটি থানায় ডিউটি অফিসারের নম্বরে যোগাযোগ করলে এ ফ্রি পরিবহন সেবা মিলবে। সিএমপির উত্তর বিভাগ এলাকা থেকে মহানগরে যে কোন স্থানে বিনামূল্যে রোগী পরিবহনে এ সেবা পাওয়া যাবে।

মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘মহামারী করোনায় বিধি-নিষেধের এ সময়ে রোগীদের গাড়ি পাওয়া দুষ্কর হয়ে উঠেছে। সিএমপির কমিশনারের নির্দেশনা অনুযায়ী রোগীদের জন্য আমরা বিনামূল্যের পরিবহন সেবা চালু করেছি। প্রতিটি থানায় পাঁচটি করে সিএনজি রোগীদের পরিবহনে সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে। তাছাড়া একটি অ্যাম্বুলেন্স ও একটি মাইক্রো সেবা দিবে। থানা থেকে এসব গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা হবে।’

কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্য সচিব অহিদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন বলেন, ‘বিধি-নিষেধে গাড়ি চলাচল না থাকায় জরুরী হাসপাতালে যাওয়ার জন্য রোগীদের দূর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। আমরা রোগীদের সেবায় বিনামূল্যের এ পরিবহন সেবা চালু করেছি। সিএমপির প্রতিটি থানায় পাঁচটি করে গাড়ি নিয়োজিত থাকবে। যে কেউ জরুরী রোগী সেবার জন্য থানায় যোগাযোগ করে এ সেবা নিতে পারবে। বিধি-নিষেধের শুরু থেকেই বিভিন্ন সেবা দিয়ে আসছি। তারই ধারাবাহিকতায় পরিবহন সেবা দেয়া হবে। এ সেবার মাধ্যমে মানুষ উপকৃত হবে- এটা আমাদের বিশ্বাস।

অনু্ষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আবু বক্কর সিদ্দিক, উত্তর বিভাগের চার থানার অফিসার ইনচার্জসহ, কমিউনিটি পুলিশিং উত্তর বিভাগের বিভিন্ন কমিটির নেতৃবৃন্দ এবং অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

Share This Post

আরও পড়ুন