শিরোনাম
সিভাসুর বিভিন্ন সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষা ১৫ জুন থেকে অনলাইনে কবিতা: আমার আমি । ইমতিয়াজ মাহমুদ নাঈম পরিকল্পিতভাবে ভাইকে ফাঁসানোর আগেই র‌্যাবের হাতে ধরা করোনাকালে ঈদুল ফিতরে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আমাদের করনীয় মোমেনবাগ ক্লাবের উদ্যোগে দুস্থ পথচারীদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ মুরাদপুরে রক্তাক্ত গন্ডামারা: এক । শুরু থেকেই স্থানীয়রা এস আলম গ্রুপকে অবিশ্বাস করতে থাকে সিএমপির সন্ত্রাসী তালিকায় আবুল হাসেম বক্কর ও হাসান মুরাদ; যুবদলের নিন্দা ও প্রতিবাদ ফেনীতে ইসলামী হোমিওরিসার্চ সেন্টারের ৪১ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন করোনা: দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩৩; নতুন সনাক্ত এক হাজার ২৩০ জনের উপায়-এ সবচেয়ে কম খরচে এটিএম ক্যাশ আউট
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৪:১৬ অপরাহ্ন

এস আলম গ্রুপের বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে বিদ্ধ আরো দুই শ্রমিকের মৃত্যু

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক / ৫২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১

বাঁশখালী, চট্টগ্রাম: বাঁশখালীর গন্ডামারায় বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে বিদ্ধ দুইজন শ্রমিক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এ দুইজনের মৃত্যুর ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ শ্রম ইনস্টিটিউট (বাশি)।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) গণ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বাঁশখালীতে এস আলম গ্রুপের নির্মাণাধীন কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকদের ওপরে পুলিশের গুলি চালানোর ঘটনায় গত ২০ ও ২১ এপ্রিলে আরো দুইজন শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় আমরা মর্মাহত ও শোকাভিভূত। আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপরে পুলিশের নির্বিচার গুলি চালানোর এ নিন্দনীয় ঘটনায় গত পাঁচদিনে সাতজন শ্রমিক নিহত হওয়া হল। আমরা চাই, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের খুঁজে বের করে তাদের শাস্তি নিশ্চিত করা হোক। যারা নিরীহ শ্রমিকদের হত্যা করে দেশ ও রাষ্ট্রকে অস্থিতিশীল করতে চাইছে, তাদের চিহ্নিত করা দরকার।’

বিবৃতি বলা হয়, ‘বাঁশখালীতে আইন ও বিধিবহির্ভূত উপায়ে এসএস পাওয়ার ওয়ান লিমিটেড নামের এ কারখানাটি স্থাপনের কর্মকাণ্ডেই নিহিত আছে, সেখানে বার বার শ্রমিক আসন্তোষ এবং স্থানীয় মানুষদের সাথে বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষের সংঘাতের কারণ। আমরা আরো উদ্বিগ্ন এটা দেখে, কেন্দ্রটিতে দীর্ঘ দিন ধরে শ্রম আইন মেনে চলা হয়নি, শ্রমিকদের সাপ্তাহিক ছুটির ব্যবস্থা রাখা হয়নি এবং শ্রমিক শেডে বাস করার পরিবেশ নেই। অথচ নিয়োজকদের এ জন্য কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থার মুখোমুখি হতে হয়নি।’

‘নিয়োজক কর্তৃপক্ষ আহত শ্রমিকদের পুরো চিকিৎসার দায়ভার নিক, দ্রুত শ্রমিকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তুলে নেওয়া হোক এবং নিশ্চিত করা হোক দোষীদের বিচার।’

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ