শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:১৩ পূর্বাহ্ন

ইউএসটিসির দখল থেকে পাহাড়তলী বধ্যভূমি রক্ষা আন্দোলনে সামিল আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক / ১৫২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

চট্টগ্রাম: দৈনিক আদাজীর সম্পাদক এমএ মালেকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন পাহাড়তলী বধ্যভূমি রক্ষা পরিষদের (পাবরপ) নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) দুপুর বারোটায় দৈনিক আজাদী কার্যালয়ে এ সৌজন্য স্বাক্ষাৎ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

অধ্যাপক ড. গাজী সালেহ উদ্দিনের নেতৃত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন আবৃত্তি শিল্পী রাশেদ হাসান, নাট্যজন মোস্তফা কামাল যাত্রা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা এসএম লিয়াকত হোসেন, শহীদ পরিবার সদস্য মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন (আঞ্জুর), আশীষ গুপ্ত, মো. কামাল ও সংবাদ কর্মী মো. আসিফ ইকবাল।

আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক বলেন ‘চট্টগ্রামে ১১১টি বধ্যভূমি চিহ্নিত হয়েছে। তার মধ্যে পাহাড়তলী বধ্যভূমি সবচেয়ে বড় বধ্যভূমি। যেখানে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন প্রায় ২০ হাজার বাঙালিকে নিধন করা হয়েছিল। অথচ স্বাধীনতার ৫০ বছরেও দেশের যে বধ্যভূমিতে সর্বাধিক বাঙ্গালী নর-নারীকে হত্যা করা হয়েছে, তা আজো সংরক্ষণের কার্যকর কোন উদ্দোগ নেওয়া হয়নি। যা অতি দুঃখজনক ও হতাশাব্যাঞ্জক।’

তিনি আরো বলেন ‘পাহাড়তলী বধ্যভূমি রক্ষা পরিষদ ২৬ মার্চের মধ্যে সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক দেয় রায় মোতাবেক এক দশমিক ৭৫ একর জমি অধিগ্রণের যে দাবি উত্থাপন করা হয়েছে, আমি আজাদী পরিবারের পক্ষ থেকে তার সাথে একমত পোষণ করছি।’

মত বিনিময়কালে মালেক এ বিষয়ে ধারাবাহিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করার জন্য আজাদীর চীফ রিপোর্টার হাসান আকবরকে দায়িত্ব দেন।

উল্লেখ্য, পাহাড়তলী বধ্যভূমির জন্য বরাদ্দকৃত এক দশমিক ৭৫ একর জমি ইউএসটিসি কর্তৃপক্ষ দখল করে সেখানে ‘জিয়া বিজনেস এন্ড এডমিনিস্ট্রেশন ইনস্টিটিউট’ নির্মাণ করলে অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন প্রধান আপিলকারী হিসাবে যে মামলা করেন ২০১৪ সালে তার রায় সুপ্রিম কোর্ট উচ্ছেদের পক্ষে প্রদান করলেও রহস্যজনক কারণে এখনো সেই জমি অধিগ্রহণ করা হয় নি। তাই ‘পাহাড়তলী বধ্যভূমি রক্ষা পরিষদ’ ২৬ মার্চের মধ্যে ইউএসটিসির অবকাঠামো সরিয়ে সম্পূর্ণ জমি অধিগ্রহণের জন্য আন্দোলন করে আসছে।

কাল বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) একই দাবিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীকে এ দাবির সপক্ষে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করবে ‘পাহাড়তলী বধ্যভূমি রক্ষা পরিষদ।’

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

add

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ