রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১১:৩২ অপরাহ্ন

আরেফিন এন্টারপ্রাইজের মিথ্যা মামলায় শ্রমিক গ্রেফতারে উদ্বেগ ও ক্ষোভ ট্রেড ইউনিয়নের

পরম বাংলাদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশ : শনিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩১০ Time View

চট্টগ্রাম: শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ড আরেফিন এন্টারপ্রাইজ কর্তৃপক্ষের ষড়যন্ত্রমূলক ও মিথ্যা মামলায় দুইজন শ্রমিকের গ্রেপ্তারে গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক যুক্ত বিবৃতিতে ফোরামের আহ্বায়ক তপন দত্ত এবং যুগ্ম আহ্বায়ক মু. শফর আলী এবং এএম নাজিম উদ্দিন গ্রেফতারকৃত শ্রমিক নেতাদের দ্রুত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, ‘জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প খাতে নিয়োগ পত্র, পরিচয় পত্র এবং সার্ভিস বুক দেয়া হয় না। কোন সবেতন ছুটি নাই। শ্রমিকেরা কাজ করলে মজুরি পায় আর কাজ না করলে মজুরি পায় না। ২০১৮ সালে সরকার এ খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ১৬ হাজার টাকা ঘোষনা করলেও এখনো কার্যকর হয়নি। কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের জীবনের কোন নিশ্চয়তা নেই। প্রতি বছর কর্মক্ষত্রে আহত হয়ে গড়ে ১৮ থেকে ২০ জন মৃত্যুবরণ করে। কিন্তু বারবার দাবি জানানো সত্ত্বেও শ্রমিকদের জন্য কোন ধরনের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। রেজিস্ট্রার অব ট্রেড ইউনিয়ন্স থেকে ১৩টি ইয়ার্ডে ইউনিয়ন রেজিস্ট্রেশন পেলেও তাদেরকে যৌথ দর কষাকষি প্রতিনিধি হিসাবে স্বীকৃতি দেয়া হচ্ছে না। এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলত বলেই ওই দুই শ্রমিক নেতাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, ‘মিথ্যা মামলা দিয়ে শ্রমিকদেরকে অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখা যাবে না।’

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ গ্রেপ্তারকৃত শ্রমিক নেতাদের দ্রুত মুক্তির দাবি জানান।

অন্যথায় জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিকসহ চট্টগ্রামের সর্বস্তরের শ্রমিকদের নিয়ে দুর্বার শ্রমিক আন্দোলন গড়ে তোলার হুশিয়ারি দিয়েছেন তারা।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারী আরেফিন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডে কর্মরত খোরশেদ এবং দিদার নামের দুইজন জাহাজ ভাঙ্গা শ্রমিক নেতাকে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের কদমরসূল এলাকার সমুদ্র উপকূলে এ শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডটি অবস্থিত। ব্যবসায়ী মো. কামাল উদ্দিনের মালিকানাধীন আরেফিন এন্টারপ্রাইজে প্রায় শ্রমিক দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটে।

প্রেস নিউজ

Share This Post

আরও পড়ুন