ঢাকাশনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আমদানিকৃত মটর প্রচলিত এইচএস কোডেই শুল্কায়ন চান চট্টগ্রামের ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফেব্রুয়ারি ২, ২০২১ ৪:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চট্টগ্রাম: সাধারণ মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ডালের বাজার স্থিতিশীল রাখা, আমদানিকারকদের আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা এবং পূর্বের ন্যায় এইচএস কোড ০৭.১৩.১০.৯০ এর আওতায় শুল্কায়ন চায় চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি।

এ বিষয়ে নির্দেশনা প্রদানের জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন চিটাগাং চেম্বারের মাহবুবুল আলম।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) এক পত্রের মাধ্যমে মাহবুবুল আলম এ আহ্বান জানান।

পত্রে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে অনেক খাদ্যশস্য আমদানি করে ঘাটতি পূরণ করা হয়, যার মধ্যে বিভিন্ন প্রকার ডাল অন্যতম। ধনী দরিদ্র নির্বিশেষে সকলের খাদ্য হিসেবে বিবেচিত এই ডাল বিগত ২০ থেকে ২৫ বছর ধরে ০৭.১৩.১০.৯০ এইচএস কোডে আমদানি এবং শুল্কায়ন হয়ে আসছে।’

চেম্বার সভাপতি বলেন, ‘হঠাৎ করে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস ০৭.১৩.৯০.৯০ এই এইচএস কোডের আওতায় শুল্কায়ন করার জন্য নির্দেশনা দিচ্ছে, যা যথাযথ নয়। কেননা ০৭.১৩.৯০.৯০ এইচএস কোডের আওতায় শুল্ক হার ১০ শতাংশ। অপর দিকে, ডাল জাতীয় পণ্যের উপর আমদানি পর্যায়ে কোন শুল্ক নেই। বিশেষতঃ গত জাতীয় বাজেটে অর্থমন্ত্রী অতি প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য হিসেবে বরাবরের ন্যায় সব প্রকার ডালকে শুল্কমুক্ত রাখেন, যা তিনি তার বক্তব্যে উপস্থাপন করেন।’

‘যদি ভুল ব্যাখ্যার কারণে এই এইচএস কোড অনুসরণ করে মটর ডালের শুল্কায়ন করা হয়, তাতে যেমন অতি প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি পাবে, অন্যদিকে এর সুরাহা না হলে শুল্কায়নের জটিলতায় চাটার্ড জাহাজ অতিরিক্ত অবস্থানের কারণে পোর্ট ডেমারেজ চার্জ, ব্যাংক ঋণসহ অন্যান্য চার্জ বৃদ্ধি পেয়ে আমদানিকৃত ডালের মূল্য বৃদ্ধি পাবে এবং স্বাভাবিক চাহিদা ও সরবরাহ ব্যবস্থায় ব্যাঘাত ঘটবে।’

এছাড়াও সাধারণতঃ পবিত্র রমজান মাসে এই ডালের ব্যবহার বহুগুণ বৃদ্ধি পায় বলে আসন্ন রমজানে নেতিবাচক প্রভাব পরিলক্ষিত হবে বলে চেম্বার সভাপতি আশংকা প্রকাশ করেন।

সাধারণ মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ডালের বাজার স্থিতিশীল রাখা, আমদানিকারকদের আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা এবং পূর্বের ন্যায় এইচএস কোড ০৭.১৩.১০.৯০ এর আওতায় শুল্কায়ন করার নির্দেশনা প্রদানে এনবিআর চেয়ারম্যানের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

Facebook Comments Box